রবিবার, মে ১৯, ২০২৪
spot_img

জাতীয় নির্বাচনে সোনারগাঁয়ে জামায়াতের প্রার্থী হচ্ছেন ডক্টর ইকবাল

আসগার ইবন হযরত আলীঃ দীর্ঘদিন আলোচনার বাইরে থাকলেও আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে তৎপর বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। প্রকাশ্য কর্মসুচিতে কম দেখা গেলেও ভেতরে ভেতরে দল গোছানোর পাশাপাশি নির্বাচনেরও প্রস্তুতি নিচ্ছে দলটি। ইতিমধ্যে কেন্দ্রের নির্দেশনা পৌঁছে গেছে তৃণমূলে।

এরই-মধ্যে দলীয় নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে আসনভিত্তিক প্রার্থীও চুড়ান্ত করে ফেলেছে দলটি। আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-০৩ সোনারগাঁ সংসদীয় আসনে নিজেদের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে দলটি। আগামী সংসদ নির্বাচনের জন্য সর্বোচ্চ প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে নেতাকর্মীদের।

জানাগেছে, এরই মধ্যে মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, গবেষক প্রিন্সিপাল ড. মো: ইকবাল হোসাইন ভূঁইয়াকে সোনারগাঁয়ে জাতীয় নির্বাচনের জন্য প্রার্থী হিসেবে চুড়ান্ত করেছে দলটি। প্রিন্সিপাল ডক্টর মো. ইকবাল হোসাইন ভূঁইয়া এর আগে ২০১৪ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইসচেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দীতা করে অল্প ভোটের ব্যবধানে দ্বিতীয় হয়ে পরাজিত হন। সোনারগাঁয়ে দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলাপ করে এসব তথ্য জানা যায়।

দলীয় সূত্র জানায়, প্রশাসনিক হয়রানির কারণে সোনারগাঁয়ে প্রকাশ্যে তেমন কোন কর্মসুচি পালন না করলেও ঝুঁকি এড়িয়ে মাঠ গোছানোর কাজ করছে দলটি। দল হিসেবে জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন হারানোয় স্বতন্ত্র হিসেবে প্রার্থী হওয়ার কথা শোনা যাচ্ছে। তবে জোটগত নির্বাচন হলে সেই সিদ্ধান্তে পরিবর্তনও আসতে পারে।

জামায়াতের জোরেশোরে নির্বাচনী প্রস্তুতির বিষয়টি স্বীকার করে সোনারগাঁ উপজেলা দক্ষিণ জামায়াতের আমির মাহবুবুল আলম বলেছেন, জামায়াত প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে নির্বাচনমুখী রাজনৈতিক দল। ভোটের পরিবেশ ঠিক থাকলে জামায়াত অবশ্যই নির্বাচনে অংশ নেবে। তবে এই সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনে না যাওয়ার ব্যাপারে জামায়াতের নীতিগত সিদ্ধান্ত রয়েছে। এইবার শেষ পর্যন্ত কী হয়, জাতীয় রাজনীতিতে নতুন কোন সিদ্ধান্ত হলে আমরা তৃণমূল থেকে সেসব বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তুত আছি।

তিনি বলেন, চলমান রাজনৈতিক আন্দোলন সংগ্রামের পাশাপাশি নির্বাচনের জন্যও আমাদের প্রস্তুতি রয়েছে। অনেক আগে থেকেই সবার মতামত নিয়ে সোনারগাঁয়ের কৃতিসন্তান  বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, গবেষক প্রিন্সিপাল ড. মো: ইকবাল হোসাইন ভূঁইয়াকে সোনারগাঁয়ে জাতীয় নির্বাচনের জন্য প্রার্থী হিসেবে বাছাই করা হয়েছে।

তিনি একজন সর্বজন শ্রদ্ধেয় ও যোগ্য মানুষ। তিনি জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় শিক্ষা বিভাগের সেক্রেটারি, সোনারগাঁ আইডিয়াল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল। এছাড়া বিগত ২০১৪ সালের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও বিপুল পরিমাণ ভোট পেয়েছিলেন। পরে নির্বাচনি ম্যাকানিজমে পরাজিত দেখানো হয় তাকে।

মাহবুবুল আলম বলেন, জামায়াত একটি আদর্শবাদী দল, কোন ব্যক্তিকেন্দ্রীক দল নয়। তাই কারো নিজে থেকে প্রার্থী হওয়ার সুযোগ নাই। দলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম ও মানবসেবামুলক কাজে জামায়াত জনগনের কাছে যাচ্ছে।

এবিষয়ে নারায়ণগঞ্জ-৩ সোনারগাঁ আসনে জামায়াতের মনোনীত প্রার্থী ডাক্তার ইকবাল হোসাইন বলেন, কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমাকে নির্বাচন করতে হবে। ইতোমধ্যে সোনারগাঁ থেকে নির্বাচন করার জন্য আমাকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়