সোমবার, জুলাই ১৫, ২০২৪
spot_img

নারায়ণগঞ্জে প্রতারক কামাল প্রধানের বসতবাড়ী নিলামে

স্টাফ রিপোর্টারঃ নারায়ণগঞ্জের চিহ্নিত প্রতারক ও সাজাপ্রাপ্ত আসামী কামাল প্রধানের বসতবাড়ী অবশেষে প্রতারণার দায়ে অর্থঋণ আদালত আইন ২০০৩ইং ১২(৩) এর ধারা মতে নিলাম বিক্রয়ের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে রূপালী ব্যাংক লিমিটেড।

নিলাম বিক্রয়ের বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ বন্দরের বাগবাড়ির প্রধান বাড়ী ১১৩নং এর কামাল প্রধানের ৩ শতাংশের বসত বাড়ীটি ঋণের জিম্মা স্বরূপ রূপালী ব্যাংক লিমিটেড, নিতাইগঞ্জ শাখার নিকট নিবন্ধিত বন্ধক রাখেন। বিগত ২৫ জানুয়ারি ২০২৩ তারিখ পর্যন্ত ১৪ লক্ষ ৫২ হাজার ৮৪২ টাকা ৫০ পয়সা এবং তৎপরবর্তী সুদ আদায়ের নিমিত্তে লিখিত শর্ত মোতাবেক নিলাম বিক্রয়ের জন্য সম্পত্তি এবং তদস্থিত যাবতীয় স্থাপনাদি যেখানে যে অবস্থায় আছে সেই অবস্থায় বিক্রয়ের জন্য সীল মোহরকৃত দরপত্র আহ্বান করে রূপালী ব্যাংকের নিতাইগঞ্জ শাখা।

শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ ইছহাক তালুকদার মেহেদী উক্ত নিলাম বিজ্ঞপ্তিটি গত ৩ এপ্রিল জাতীয় দৈনিক যুগান্তর ও নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় দৈনিক দেশের আলো পত্রিকায় বন্ধকী সম্পত্তি নিলাম বিক্রয়ের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন এবং গত ১৭ এপ্রিল ব্যাংকের জোনাল অফিস নারায়ণগঞ্জে রক্ষিত দরপত্র বাক্সে দরপত্র জমা নেন। দরপত্র অনুযায়ী প্রতারক কামাল প্রধানের দ্বারা ভুক্তভোগী মোঃ রুবেল মিয়া দরপত্র জমা দেন।

উল্লেখ্য যে, কামাল প্রধান ব্যাংকের নিকট দায়বদ্ধ বাড়ীটি বন্দর নবীগঞ্জের মৃত ফকির চানের ছেলে রুবেল মিয়ার কাছে প্রায় ১৯ লক্ষ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দেন। কিন্তু রুবেল মিয়া কাগজপত্র ঠিকঠাক করতে গেলে প্রতারক কামালের প্রতারণার বিষয়টি ধরা পড়ে। প্রতারণার বিষয়ে কামালের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয় ভুক্তভোগী রুবেল মিয়া। এদিকে ব্যাংক থেকে ১০ লাখ টাকা ঋণ নেওয়ার পর প্রতারক কামাল প্রধান গোপনে তার স্ত্রী ও সন্তানের নামে জমি হেবা করে দেয়। এই বিষয়টি ব্যাংকের দৃষ্টিগোচর হলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ হার্ড লাইনে চলে আসে। রূপালী ব্যাংক লিমিটেড এর নারায়ণগঞ্জ কর্পোরেট শাখার এজিএম মোঃ জাকির হোসেন জানান, কামাল প্রধান একজন চিহ্নিত প্রতারক এবং দুরন্ধর। তার বিরুদ্ধে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ প্রতারণার দায়ে দুটি মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

কামাল প্রধান নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন মানুষের সাথে প্রতারণা করে চলেছে এবং বন্দর থানার একটি জাল দলিল সম্পাদনের অভিযোগের মামলায় বর্তমানে ওয়ারেন্ট ইস্যু রয়েছে। পলাতক থেকেও কামাল প্রধান ফেসবুকের মাধ্যমে তার অপকর্ম চালিয়ে বিভিন্ন মানুষকে হুমকী ধামকী দিয়ে যাচ্ছে। ৭৪৮/১৯ ও ৭৫০/১৯ সেশন মামলা দুটিতে বিজ্ঞ ৩নং যুগ্ম দায়রা জজ আদালতে কামাল প্রধানের বিরুদ্ধে এক বছরের সাজা প্রদান করেন বিজ্ঞ আদালত।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়