মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
spot_img

থাইল্যান্ডে আটক রেখে মুক্তিপণ দাবী, মামলায় গ্রেফতার ১

আড়াইহাজার সংবাদদাতাঃ আড়াইহাজার থেকে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে থাইল্যান্ডে আটক করে মুক্তিপণ দাবী করায় ৫ জনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার রাতে উপজেলার বিশনন্দী গ্রামের আবুল কালাম আজাদ নামের একজন ভুক্তভোগী বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। এর মাঝে চৈতনকান্দা গ্রামের এলাহীর ছেলে আবুল হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ। বাকীরা পলাতক রয়েছে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার বিশনন্দী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম থেকে ফুসলিয়ে পাচারকারী চক্রটি মালয়েশিয়া নিয়ে চাকরী প্রদানের প্রলোভন দিয়ে জাহাজ-ট্রলার, নৌকা-কার্গো ইত্যাদির মাধ্যেমে বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে আটক করে মুক্তিপণ হিসেবে ৬ লাখ করে টাকা দাবি করে। সম্প্রতি বিশনন্দী এলাকার জহিরুল হক (৩৯), একই এলাকার সজিব (২০), একই এলাকার নিজাম (৩৬), চৈতনকান্দার আনিস (২৫) নামে লোকেদের মালয়েশিয়া পাঠাবে বলে থাইল্যান্ডে নিয়ে আটক করে রাখে। সবার থেকে ৬ লাখ করে, ধাপে ধাপে ১৮ লাখ টাকা মুক্তিপন হিসেবে দাবি করে। মুক্তিপনের টাকা না দিলে তাদেরকে খুন করে নদীতে লাশ ভাসিয়ে দিবে বলে জানান। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার রাতে আবুল কালাম আজাদ মামলা দায়ের করেন।

পলাতক আসামিরা হলেন- নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার চৈতনকান্দা উত্তর আগার বাড়ি এলাকার আমির আলীর ছেলে ইসমাইল (৪৫), একই এলাকার চৈতনকান্দা মাঝিবাড়ির আসমত আলীর ছেলে জসিম (৩৫), চৈতনকান্দা উত্তরপাড়া জলিল সাহেবের মাদ্রাসা এলাকার ওমর আলী (৩৫), আড়াইহাজার থানার বিশনন্দী এলাকার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে আবু সাঈদ।

আড়াইহাজার থানার ওসি ইমদাদুল হক তৈয়ব জানান, গ্রেফতাতকৃত আসামী দীর্ঘদিন যাবৎ মানব পাচার চক্রের সাথে জড়িত। আসামিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে মানব চক্রের সাথে জড়িত বলে স্বীকার করে এবং তারই দেয়া তথ্য মতে বেড়িয়ে আসে পলাতক আসামীদের নাম ঠিকনাসহ আসল তথ্য।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়