শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪
spot_img

পল্লী বিদ্যুৎ ডিজিএম’র অপসারণ চেয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

সংবাদ সিক্সটিনঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ-১ ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার ( ডিজিএম) মোঃ জসীম উদ্দিনের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে গ্রাহক ও সাধারণ মানুষ। বৃহস্পতিবার দুপুরে সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকের সামনে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করা হয়।

ডিজিএম’র স্বেচ্ছাচারিতা, অসদ আচরণ, অনিয়ম ও গ্রাহক হয়রানীর অভিযোগ তুলে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করা হয়।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বাড়ি মজলিস এলাকার গ্রাহক আনোয়ার হোসেন, শফিউদ্দিন, সোনারগাঁ পৌরসভার মাসুম বিল্লাহ, মাহমুদ হাসান, টগর আহমেদ, রাশেদুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, রাজু আহমেদ ও খোকন সরকার প্রমুখ। মানববন্ধনে বিভিন্ন এলাকার প্রায় ৫ শতাধিক গ্রাহক ও সাধারণ মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধন কর্মসূচি গ্রাহক আনোয়ার হোসেন বলেন, পল্লী বিদ্যুৎ-১ ডিজিএম জসীম উদ্দিন স্বেচ্ছাচারিতায় গ্রাহকরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। তার গ্রামের বৈদ্যুতিক ট্রান্সফর্মার নষ্ট হয়ে গেলে তার কার্যালয়ে যান। যাওয়ার পর  ঠিক হয়ে যাবে বলে দেন। দু’দিন যাওয়ার পর ঠিক না করায় তার কাছে পুনরায় গেলে কথা বলার এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে খারাপ আচরণ করেন। দ্রুত তাকে এ কার্যালয় থেকে অপসারণ করে বদলি করতে হবে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তাকে বদলি করা না হলে কঠোর কর্মসূচী দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়।

মাসুম বিল্লাহ নামের গ্রাহক বলেন, ডিজিএম সাধারণ মানুষকে পাত্তা দেন না। গ্রাহকদের সাথে খারাপ আচরণ করেন। তার রুমে সহজে কাউকে প্রবেশ করতে দেন না। তার এক ভাই আমলা ও সচিবের ভয়ভীতি দেখায়। আমরা পৌরবাসী তার যন্ত্রনায় অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। তার কার্যালয়ের অন্যান্যরাও আমাদের সাথে সহযোগিতা করেন না। জননেত্রী শেখ হাসিনার শতভাগ বিদ্যুৎ উদ্যোগকে তার মতো ডিজিএমের কারণে ব্যঘাত ঘটতে দেওয়া যাবে না। তাকে দ্রুত অপসারণ চাই।

শফিকুল ইসলাম নামের আরেক গ্রাহক বলেন, পল্লী বিদ্যুতের কার্যালয়টি এখন সিন্ডিকেটের কবলে পড়েছে। সিন্ডিকেট থেকে দ্রুত সাধারণ মানুষকে উদ্ধার করতে হবে। বন্দর উপজেলার পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যান রেজাউল করিমের ছেলে হিমেল মিয়া ও টিপরদী এলাকার ভাড়াটিয়া আক্কাস ওরফে বরিশালের আক্কাস ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা আলমগীরের নেতৃত্বে একটি সিন্ডিকেট রয়েছে। সকল টাকা পয়সার লেনদেন তারা করে থাকে। টাকার বিনিময়ে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে আবেদন করলেই অনুমোদন হয়। না হলে বিভিন্ন অজুহাতে বাতিল করে। আমরা স্বেচ্ছাচারী ডিজিএমকে অপসারণ চাই।

সোনারগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ-১ ডিজিএম মোঃ জসীম উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এখানে গ্রাহক বা সাধারণ মানুষ নেই। অন্যায় আবদান না রাখার কারনে ষড়যন্ত্র করে আমার বিরুদ্ধে  মানববন্ধন করেছে।

নারায়ণগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ কার্যালয়ের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার (সদর দপ্তর ) প্রকৌশলী হরেন্দ্র নাথ বর্মন বলেন, মানববন্ধন ও বিক্ষোভের বিষয়টি জানতে পেরেছি। তদন্ত করে উর্ধ্বতন কার্যালয়ে জানানো হবে।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়