বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫, ২০২৪
spot_img

শশুরকে কুপিয়ে পুত্রবধূর পলায়ন

সংবাদ সিক্সটিনঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে পারিবারিক কলহের জের ধরে আবদুল মান্নান (৬৬) নামে এক বৃদ্ধ ব্যক্তিকে কুপিয়ে জখম করেছে তারই পুত্রবধূ চামেলি বেগম।

গতকাল রাত ৮ ঘটিকার সময় সোনারগাঁ পৌরসভার হাতখোপা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে পুত্রবধূ চামেলি আক্তার (৩৫) পলাতক রয়েছে। আহত মান্নানকে উদ্ধার করে মুমুর্ষ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, গত বুধবার রাতে মান্নানের আত্ম চিৎকারে তার বাসার সামনে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় গেইটের ভিতর পরে রয়েছে। পরে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে  সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তিনি এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিউতে ভর্তি রয়েছেন।

আহত মান্নানের স্বজনরা বলেন, মান্নানের দুই ছেলে কাউছার মিয়া ও রাসেল মিয়া ও এক মেয়ে রয়েছে। বসত বাড়ি ছাড়া সব সম্পত্তি সন্তানদের মধ্যে ভাগবাটোয়ারা করে লিখে দেন। কিন্তু বড় ছেলে কাউছার মিয়ার সাথে মনমালিন্য হওয়ায় সব সম্পত্তি বিক্রয় করে দেন। বসত বাড়ির কিছু অংশ বিক্রয় করবেন বলে জানান আহত মান্নান। এতে তার দুই ছেলেই বসতবাড়ি কিনতে চায়। কিন্তু তিনি বড় ছেলের কাছে বাড়ি বিক্রয় করতে রাজি নন।

স্বজনরা আরও বলেন, আহতের বড় ছেলে কাউছার মিয়া প্রবাসে থাকায় তার স্ত্রী চামেলি আক্তার কুষ্টিয়া বাবার বাড়িতেই থাকতেন। তার স্বামী প্রবাস থেকে মুঠোফোনে চামেলিকে তার শ্বশুরের সাথে জমি বিক্রয়ের বিষয়ে কথা বলতে সোনারগাঁ যেতে বলেন। গত বুধবার রাতে সোনারগাঁ পৌরসভার হাতখোপা গ্রামে এসে শ্বশুরের সঙ্গে জমির বিষয়ে কথা বলেন। এসময় তার স্বামীর কাছে বাড়ি বিক্রয় করবেনা বলায় শ্বশুরের সাথে তর্কাতর্কিতে জড়িয়ে পড়েন পুত্রবধু চমেলি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ঘরে থাকা চাপাতি দিয়ে শ্বশুরকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে পালিয়ে যায়।

সোনারগাঁ থানার  ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম কামরুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আহত মান্নান এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়