সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
spot_img

নৌকা কোনো সাধারণ প্রতীক নয়, এটা একটা আবেগ: কায়সার হাসনাত

সংবাদ সিক্সটিনঃ নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীক মনোনীত প্রার্থী ও সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত নির্বাচনী গণসংযোগে বলেন, ভোটের দিন সকালে ফজর নামাজ পড়ে, আমি আমার বাবা-মার কবর জিয়ারত করব এবং দোয়া চাইব। তারপর ফজর নামাজ পড়েই দোয়া চেয়ে কেন্দ্র পাশেই, কেও মাঠে থাকুক আর না থাকুক। আমি কেন্দ্রের সামনেই দাঁড়ায়ি থাকব। তখন প্রিজাইডিং অফিসার ভোটারদের জন্য কেন্দ্র উন্মুক্ত করবে।

আমি চাই, সর্বপ্রথম যখনই কেন্দ্র উন্মুক্ত হবে ভোটারদের জন্য আমি গিয়ে ব্যালট পেপারটি নিব, ব্যালট পেপারটি নিয়েই যখন মার্কা গুলো দেখব। সিলটি নিব বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম বলে নৌকা প্রতীকে সুন্দরমত সিলটি দিয়ে ‘দশ বছরের মনে এর আবেগ মনের কষ্ট’ -আলহামদুলিল্লাহ, বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম বলে নৌকায় একটা ভোট দিয়ে। আমি সেখান থেকে বের হয়ে, দুই রাকাত শুকরানা নামাজ পড়ে তারপরে অন্যান্য কেন্দ্রে আমি আমার দায়িত্ব পালন করতে বের হব। আমি আমার আবাগের কথা বললাম।

রবিবার (৩১ ডিসেম্বর) সোনারগাঁয়ের পিরোজপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণনসংযোগ করেন এবং তিনি সেখানে ভোটারদের এসব কথা বলেন।

তিনি গণসংযোগে ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন, এই নৌকা প্রতীক এমনই, এটা একটা আবেগ! এটা একটা আবেগ। এটা সাধারণ কোনো প্রতীক না, এটা একটা আবেগ। এই আবেগ ভাষায় লিখে আপনারা শেষ করতে পারবেন না। এর সাথে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আবেগ জড়িত, এইখানে বাংলাদেশের আবেগ জড়িত, স্বাধীনতার আবেগ জড়িত, আমাদের অস্তিত্বের আবেগ জড়িত। বাংলাদেশের প্রত্যেক নাগরিকের অস্তিত্ব স্বাধীনতার অস্তিত্বর প্রতীক হলো নৌকা। এটাও আমার আবেগের কথা।

কায়সার বলেন, আপনাদের ভোট আপনারা দেবেন যাকে খুশি তাকে দিবেন। কেউ আপনাদের জোড়াজুড়ি করবেনা। সে পরিবেশ নাই। এবার খুব কঠিন নির্বাচন হবে। ডানে বামে তাকাইয়া কে কি করল। এসব চলবে না। প্রত্যেক ভোটার স্বাধীন মতো কেন্দ্রে গিয়ে, তার ভোট দিবে স্বাচ্ছন্দ মতো। কোনো পার্শ্ববর্তী ডান বাম কোনো সন্ত্রাস বাহিনীর দ্বারা প্রভাবিত হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়