মঙ্গলবার, জুন ২৫, ২০২৪
spot_img

নদীপথে মালয়েশিয়া উদ্দেশ্যে আড়াইহাজারের আরো ৯ যুবক নিখোঁজ

সংবাদ১৬.কমঃ নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থেকে নদীপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার কথা বলে গত দুই দিনে ৯ জন যুবক নিখোঁজ হয়েছেন। নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে তাদের পরিবারের কাছে ৪ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবী করে আসছে মানবপাচারকারী চক্র। প্রশাসন যাদের এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারছে না । ফলে একের পর এক মানবপাচার ও মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনা ঘটলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করছে ভুক্তভোগী পরিবারগুলো।

শনিবার (২২ জুলাই) অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করা অভিবাসী কর্মী উন্নয়ন প্রোগ্রাম (ওকাপ) কর্মকর্তারা সরেজমিনে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলে পরিচয় শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছেন।

ওকাপ জানান, নিখোঁজদের মধ্যে ৬ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। বাকীদের পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।  নিখোঁজ ৬ জন হলেন-কল্যাণদী শেখবাড়ি এলাকার ইকবালের ছেলে নাজমুল হোসেন, সামছুদা মিয়ার ছেলে হৃদয় মিয়া, আঃ হান্নান মিয়ার ছেলে সাজ্জাদ মিয়া, রিপন মিয়ার ছেলে হালিম মিয়া, মজিবুর রহমানের ছেলে আব্দুল্লাহ মিয়া ও মিছির আলীর ছেলে শাহীন আলী।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, আড়াইহাজার উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের কল্যান্দী, বিলপাড়, শেখবাড়ি, রঘুনাথপুর, খোজ পাড়া ও জোকারদিয়া গ্রামের ৯ জন পুরুষ  নৌ পথে মালয়েশিয়ার  উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বেড় হয়। পরিবারের সদস্যদের সাথে কিছু না বলেই তারা বাড়ি থেকে চলে গেছে। বাড়ি থেকে চলে যাওয়ার পর ফোনের মাধ্যমে একটি চক্র তাদের পরিবারের কাছে জন প্রতি ৪ লাখ টাকা করে মুক্তিপণ দাবী করে আসছে।

নিখোঁজ হৃদয়ের বাবা সামছুদা বলেন, গত দুইদিন ধরে আমার ছেলের কোনো খোঁজ পাচ্ছি না। একলোক নামপরিচয় গোপন রেখে ফোন করে বলে ৪ লাখ টাকা দিলে আমার ছেলেকে ছেড়ে দিবে। টাকা না দিলে আমার ছেলেকে মেরে ফেলবে বলছে। আমি আমার ছেলেকে ফিরে পেতে চাই।

অভিবাসী কর্মী উন্নয়ন পোগ্রাম (ওকাপ) কর্মকর্তা আমিনুল হক বলেন, আমরা নিখোঁজদের পরিবারের সাথে কথা বলেছি। নিখোঁজদের তালিকা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে জানানোর কথা বলেছি। সেই সাথে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবগত করে থানায় জিডি করার কথা বলেছি। তাদের ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে আমাদের যা যা করণীয় সবই করবো।

আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইশতিয়াক আহাম্মেদ বলেন, আমরা অনেকদিন ধরেই মানবপাচারের বিরুদ্ধে কাজ করে আসছি। সম্প্রতিক সময়ে ৯ জন নিখোঁজের কথা শুনেছি। আমরা এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকের সাথে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

এর আগে মালয়েশিয়া নেয়ার কথা বলে আড়াইহাজারের ১২ যুবককে মায়ানমারের জেলখানায় বন্দী রাখার ঘটনায় তাদের মুক্তির দাবীতে গত ১১ জুলাই আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) নিকট একটি লিখিত আবেদন করেছিলেন পরিবারের সদস্যরা।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়