সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪
spot_img

হিরো আলমকে নিয়ে টুইট করায় জাতিসংঘের প্রতিনিধির প্রতি ঢাকার অসন্তোষ

সংবাদ ডেস্কঃ গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে জাতিসংঘ আবাসিক প্রতিনিধি গোয়েন লুইসেকে ডাকা হয়। তবে তিনি ছুটিতে থাকায় তার পক্ষে হাজির হন ভারপ্রাপ্ত প্রধান ও ইউনিসেফের কান্ট্রি ডিরেক্টর শেলডন ইয়েট।

এসময় ঢাকা-১৭ আসনের উপ-নির্বাচনের প্রার্থী আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলমের উপর হামলার ঘটনা নিয়ে টুইট করায় জাতিসংঘের এই প্রতিনিধিকে অসন্তোষ জানিয়েছে ঢাকা।

গত সোমবার ঢাকা-১৭ উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলাকালে স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম বনানীর একটি কেন্দ্র পরিদর্শনে যান। এসময় নৌকা প্রার্থীর সমর্থকেরা তাঁকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর করে। ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়ে মঙ্গলবার টুইট করেন বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি গোয়েন লুইস। তবে শুধু সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেই প্রতিক্রিয়াই নয়, বিষয়টি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখাও করেন জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি। এতে ক্ষুব্ধ হয় ঢাকা। এরপরই লুইস গোয়েনকে তলব করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, উন্নয়নের অংশীদার হয়ে জাতিসংঘের কাছ থেকে রাজনৈতিক মন্তব্য কাম্য নয়।

এদিকে মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরে এক ব্রিফিংয়ে মুখপাত্র ম্যাথু মিলারের কাছেও হিরো আলমের ওপর হামলা সংক্রান্ত প্রশ্ন উত্থাপিত হয়েছে। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক নির্বাচনে এ ধরনের রাজনৈতিক সহিংসতার কোনো স্থান নেই। এরপর বুধবার ঢাকায় অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ ১১টি দেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের দূতাবাস এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দেয়।

বুধবার এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ কর পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেছিলেন, আমেরিকায় যখন–তখন লোক মেরে ফেলে, তখন কি তারা বিবৃতি দেয়, জাতিসংঘ কি বিবৃতি দিয়েছে? বাংলাদেশ হলেই বিবৃতি, মগের মুল্লুক পাইছে ওরা। এভাবে বিবৃতি দেওয়া গ্রহণযোগ্য নয়। সূত্র: ঢাকা টাইমস

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়