সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪
spot_img

কোটি-কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা প্রতারক দুই সহোদর

সংবাদ১৬.কমঃ পাওনা টাকা চাওয়ায় মো: জসিম উদ্দিন নামে এক ব্যবসায়ীকে প্রাণনাশের  হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে বাদশা বুলবুল ও আতাউর রহমান নামে দুই প্রতারকের বিরুদ্ধে। তারা দুজন আপন ভাই।

এ ঘটনায় গত ২৮-৮-২০ ইং তারিখে ঢাকা ডিএমপি দারুস সালাম থানায় একটি লিখিত  অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী মো: জসিম উদ্দিন।

বাদশাহ বুলবুল বর্তমানে দেশ থেকে পালিয়ে দুবাই অবস্থান করছেন। বড়ভাই আতাউর রহমান সরকার দেশে থাকলেও পলাতক রয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণা করে টাকা আত্মসাতের একাধিক মামলা রয়েছে। তারা নাটোর জেলার সিংড়া থানার সূর্যপুর গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমান ঠিকানা ১১৭/১ মুন ভিলা, মধ্য বাড্ডা, ঢাকা

অভিযোগ থেকে জানা যায়, জেএম ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল ও এভি ইন্টারন্যাশনাল ভ্লু ভিলা নামে প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ দেখিয়ে ৭০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেন প্রতারক বাদশা বুলবুল ও তার ভাই আতাউর রহমান। ব্যবসায়ীক চুক্তি ভিত্তিক ২ মাস পর ৮ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ছিলো, কিন্তু এক বছর অতিক্রম হয়ে পরলেও তিনি আর টাকা দেননি। টাকা চাইলে দেই দিচ্ছি বলে টালবাহানা করছে।

ভুক্তভোগী জসিম সংবাদ ১৬ কে বলেন, আমি আর বুলবুল পার্টনারে ব্যবসা করার কথা ছিলো।  জেএম ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল ও এভি ইন্টারন্যাশনাল ভ্লু ভিলা নামে প্রতিষ্ঠানের নামে আমাকে ৮ লক্ষ টাকা প্রফিট দেখিয়ে আমার কাছ থেকে ৭০ লক্ষ টাকা নেয়, চুক্তিভিত্তিক দুই মাস পর প্রফিট সহ পুরো টাকা দেয়ার কথা থাকলেও এক বছর হয়ে যাবার পরও টাকা দিচ্ছেন না তিনি। আমি টাকা চাইতে গেলে আমাকে মেরে লাশ ঘুম করে ফেলার হুমকি প্রদান করছে।

এখানেই শেষ নয়, রাজধানীর হাতিরঝিলে জমির মালিক সালাউদ্দিন সাহেব কে ভূলভাল বুঝিয়ে ৬ কোটি টাকার জমি নগদ ১০ লাখ টাকা ও ৬ কোটি টাকার চেক এবং ৩০০ টাকার স্ট্যাম্প দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে নিয়েছে ২০২১ সালে। এখন টাকা চাইতে গেলে প্রতারক বাদশা বুলবুলের ভাই আতাউর রহমান সরকার জমির মালিককে হত্যার হুমকি দিচ্ছে।

এছাড়াও গত ২১/০৪/২০২২ সালে আলাউদ্দিন নামে এক ব্যক্তির নিকট থেকে মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে আতাউর রহমান সরকার নগদ ২৩ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে চেক জমা রাখে। বর্তমানে উক্ত চেকের মামলা চলমান।

এদিকে বাদশাহ বুলবুল গুলশানের বাসিন্দা তোফাজ্জল হক নামের এক ব্যক্তির কাছ থেকে অধিক লভ্যাংশের প্রলোভন দেখিয়ে ২০১৯ সালে নগদ ১ কোটি ১০ লাখ টাকা চেকের বিনীময়ে হাতিয়ে নেয়, উক্ত চেকের মামলাটিও চলমান বটে।

ভুক্তভোগীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাদশা বুলবুল বর্তমানে ডুবাই বসবাস করছেন কিন্তু তার ভাই আতাউর রহমান দেশেই আছেন। তাকে মোবাইল ফোনে কল দিয়ে টাকা চাইতে-না-চাইতেই তাদেরকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। অধিকাংশ সময় মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। কোন ক্রমেই সাক্ষাৎ করতে চাচ্ছেন না প্রতারক আতাউর রহমান।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়