বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪
spot_img

ধর্মীয় শান্তি ও সম্প্রীতিতে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ: মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেছেন, দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার অটুট আছে এবং আজীবন থাকবে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুষ্ঠু ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারণেই দেশের সকল মানুষ সুন্দরভাবে নিজ নিজ ধর্ম স্বাধীনভাবে পালন করতে পারছেন। প্রত্যেক ধর্মের উন্নয়নে সরকার সমভাবে গুরুত্ব দিয়ে আসছে। এ কারণেই বিশ্বে ধর্মীয় শান্তি ও সম্প্রীতিতে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ।

আজ পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে বান্দরবান শহরের শ্রী শ্রী রামঠাকুর সেবাশ্রম ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এমন মন্তব্য করেন।

পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি আরও বলেন, পার্বত্য জেলাগুলোতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার  রাস্তাঘাট, সেতু, কালভার্ট, ড্রেন, সুয়ারেজ দৃশ্যমান উন্নয়নের পাশাপাশি সকল ধর্মাবলম্বীদের জন্য মসজিদ, মন্দির, গীর্জা, বিহারসহ ধর্মীয় উপাসানালয় নির্মাণ করে ধর্মীয় শান্তি ও সম্প্রীতি অব্যাহত রেখেছে। মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের উন্নয়নের জন্য যা বলেন, তা সম্পূর্ণ বাস্তবায়ন করেন। দেশের মানুষ তাই নির্বিঘ্নে-নিশ্চিন্তে স্ব-স্ব- ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালন করতে পারছেন। তিনি আগামির স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে উন্নয়ন কাজে অংশ নেয়ার আহ্বান জানান।

সভাপতির বক্তব্যে শ্রী শ্রী রামঠাকুর সেবক সংঘের সভাপতি অরুণ কান্তি দাশ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচিত পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সুযোগ্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি’র ধর্ম হলো পার্বত্যবাসীর ধর্মীয় কাজে একটি মন্দির নির্মাণ করলে পাশাপাশি মুসলমানদের জন্য মসজিদ ও বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের জন্য বিহার নির্মাণ করা। সকল ধর্মাবলম্বীদের জন্য তিনি সমহারে সমগুরুত্ব দিয়ে থাকেন। মন্ত্রী বীর বাহাদুর সকল ধর্মের মানুষের কল্যাণে সকলকে সাম্য, সুশৃঙ্খল ও ভ্রাতৃত্ব বন্ধনে আবদ্ধ রাখতে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এর আগে মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে বান্দরবান শহরের বাস স্টেশন সংলগ্ন বায়তুল শরফ জামে মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বান্দরবান পুলিশ সুপার মো. তারিকুল ইসলাম, বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে হাবিবা মিরা, জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষ্মীপদ দাশ, বান্দরবান পৌরসভার মেয়র সৌরভ দাশ, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াসির আরাফাত, শ্রী শ্রী রামঠাকুর সেবক সংঘের সভাপতি অরুণ কান্তি দাশ, সাধারণ সম্পাদক তাপস কান্তি দাস উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে অসহায় শতাধিক নারী ভক্তদের মাঝে পরিধেয় বস্ত্র শাড়ি উপহার দেয় মন্দির কর্তৃপক্ষ।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়