শুক্রবার, মে ২৪, ২০২৪
spot_img

জাপান, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য সফরে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা

সংবাদ ডেস্কঃ সোমবার ২৪ এপ্রিল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন জানান, জাপান, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামীকাল সকাল পৌনে ৮টায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইটে জাপানের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন তিনি। ১৫ দিনের সফর শেষে আগামী ৯ মে দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী।

মন্ত্রী জানান, জাপানের প্রধানমন্ত্রী কুমিও কিশিদার আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী ২৫-২৮ এপ্রিল জাপানে সরকারি সফর করবেন। এরপর বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ডেভিড ম্যালপাসের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটন যাবেন। সেখান থেকে তিনি ব্রিটেনের রাজা চার্লস (৩য়) এবং কুইন কনসোর্ট ক্যামিলার রাজ্যাভিষেক অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

জাপান সফরে দেশটির সঙ্গে প্রতিরক্ষাসহ ৮টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সইয়ের কথা জানান মোমেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জাপান পৌঁছালে তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হবে। ২৬ এপ্রিল তিনি জাপানের সম্রাট নারুহিতোর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। একই দিন সন্ধ্যায় জাপানের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দুই দেশের সরকার প্রধানের মধ্যে আনুষ্ঠানিক দ্বিপাক্ষিক শীর্ষ বৈঠক হবে।

মোমেন জানান, দুই সরকারপ্রধানের উপস্থিতিতে উভয় দেশের মধ্যে কৃষি, মেট্রোরেল, ইন্ডাস্ট্রিয়াল আপগ্রেডেশন, শিপ রিসাইক্লিং, কাস্টমস ম্যাটারস, ইন্টেলেকচুয়াল প্রোপার্টি, ডিফেন্স কো-অপারেশন, আইসিটি এবং সাইবার সিকিউরিটি কো-অপারেশন নিয়ে সেক্টরে প্রায় ৮টি চুক্তি বা সহযোগিতা স্মারক স্বাক্ষরিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এরপর শেখ হাসিনা জাপানের প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে আয়োজিত নৈশভোজের মধ্য দিয়ে শীর্ষ বৈঠকের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করবেন বলে জানান মন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর জাপান সফরে দুই দেশের সম্পর্ক কৌশলগত অংশীদারিত্বে উন্নীত হওয়ার বিষয়টি অধিকতর গুরুত্ব সহকারে আলোচনার সুযোগ সৃষ্টি করবে। প্রধানমন্ত্রীর সফর সফল এবং ফলপ্রসূ হবে বলে আমরা আশাবাদী। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জাপান সফরে থাকছেন-বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানাও।

বাংলাদেশ ও বিশ্বব্যাংকের পার্টনারশিপের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ডেভিড ম্যালপাসের আমন্ত্রণে টোকিও থেকে যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ওয়াশিংটন সফর নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ওয়াশিংটন ডিসিতে বিশ্বব্যাংকের সদরদপ্তরে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন শীর্ষক সেমিনার আয়োজন করা হবে। ওই সেমিনারে প্রধানমন্ত্রী ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট বক্তব্য রাখবেন। ওই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের উন্নয়নের জয়যাত্রা ও গত পাঁচ দশকে বাংলাদেশে বিশ্বব্যাংকের কার্যক্রম তুলে ধরা হবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের বোর্ড অব ডিরেক্টরসের একান্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট নিসা বিসওয়ালের আমন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়িক প্রতিনিধিদলের সঙ্গে গোল টেবিল বৈঠকে অংশগ্রহণ করবেন এবং মূল বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন। প্রধানমন্ত্রী দ্যা ইকনোমিস্ট পত্রিকাকে সাক্ষাৎকার দেবেন। এছাড়া তিনি যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিক কর্তৃক আয়োজিত কমিউনিটি ইভেন্টে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এর বাইরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট অজয় বাঙ্গার সৌজন্য সাক্ষাতের কথা রয়েছে। ৪ মে লন্ডনের উদ্দেশে ওয়াশিংটন ত্যাগ করবেন প্রধানমন্ত্রী।

আগামী ৫ ও ৬ মে লন্ডনে ব্রিটেনের রাজা চার্লস তৃতীয় এবং কুইন কনসোর্ট ক্যামিলার রাজ্যাভিষেক অনুষ্ঠিত হবে। এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, রাজ্যাভিষেক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন। ৭০ বছর পর অনুষ্ঠেয় ব্রিটিশ রাজতন্ত্রের রাজ্যাভিষেক অনুষ্ঠানে প্রায় ১৩০টি দেশের রাষ্ট্র বা সরকার প্রধান (কমনওয়েলথভুক্ত অধিকাংশ দেশের সরকার প্রধানসহ) অংশগ্রহণ করবেন বলে আশা করা যায়।

মোমেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর লন্ডন সফরে তার সঙ্গে কমনওয়েলথের সেক্রেটারি জেনারেল সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। এছাড়া যুক্তরাজ্যের কয়েকজন মন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হতে পারেন। এছাড়া তিনি লন্ডনের একটি হোটেলে আয়োজিত একটি নাগরিক সংবর্ধনায় অংশগ্রহণ এবং যুক্তরাজ্যে বসবাসরত বাংলাদেশি ও বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নাগরিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়