বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪
spot_img

দেশে মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন

সংবাদ১৬.কমঃ রবিবার জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২ এর প্রতিবেদনের অথ্য অনুযায়ী জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২ গণনাকৃত ও পিইসির মাধ্যমে সমন্বয়কৃত মোট জনসংখ্যার তুলনামূলক চিত্র উপস্থাপন করেন প্রকল্প পরিচালক মো. দিলদার হোসেন। সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম।

বাংলাদেশে মোট জনসংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৮ কোটি ৪০ লাখ ৭৭ হাজার ২০৩ জন আর নারী ৮ কোটি ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার ১২০ জন। অর্থাৎ পুরুষের তুলনায় নারী বেশি ১৫ লাখ ৭৫ হাজার ৯১৭ জন। জনসংখ্যার প্রায় ৫৭ শতাংশই তরুণ। আর সবচেয়ে বেশি মানুষ বাস করে ঢাকা বিভাগে।

দেশের জনসংখ্যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি মুসলিম। দেশের মোট জনসংখ্যার ৯১ শতাংশ মুসলিম। মুসলমানের সংখ্যা ১৫ কোটি ৪৫ লাখ ৪২ হাজার ৭৮ জন। অন্যান্য ধর্মাবলম্বী ১ কোটি ৫২ লাখ ৮৭৬ জন। সবচেয়ে বেশি জনসংখ্যা ১৫ থেকে ১৯ বছর বয়সী ১ কোটি ৭১ লাখ ৬০ হাজার ১৭৫ জন। অর্থাৎ দেশের মোট জনসংখ্যার ১০ দশমিক ১০ শতাংশ তরুণ। সবচেয়ে কম হচ্ছে ৭০ থেকে ৭৮ বছর বয়সী মানুষ।

দিলদার হোসেন বলেন, জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এর প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশের গণনাকৃত মোট জনসংখ্যা ছিল ১৬ কোটি ৫১ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। পিইসিতে (প্রাথমিক প্রতিবেদন) প্রাপ্ত ২.৭৫ শতাংশ এনইসি-এর প্রেক্ষিতে ৪৬ লাখ ৭০ হাজার ২৯৫ জন যোগ হয়ে দেশের সমন্বয়কৃত মোট জনসংখ্যা হলো ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন। সমন্বয়কৃত মোট জনসংখ্যার ৬৮.৩৪ শতাংশ পল্লিতে এবং ৩১.৬৬ শতাংশ শহরে বাস করে।

বিভাগভিত্তিক জনসংখ্যা পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, সবচেয়ে বড় বিভাগ ঢাকার গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ৪ কোটি ৪২ লাখ ১৫ হাজার ১০৭ জন; সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা হলো ৪ কোটি ৫৬ লাখ ৪৩ হাজার ৯১৫ জন, যা দেশের মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ২৬.৮৮ শতাংশ। সবচেয়ে কম জনসংখ্যা বরিশাল বিভাগে, মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ৫.৪৯ শতাংশ। তবে জনসংখ্যার হার শহরের চেয়ে গ্রামে বেশি।

প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশে পুরুষের সংখ্যা ছিল ৮ কোটি ১৭ লাখ ১২ হাজার ৮২৪ জন, নারীর সংখ্যা ৮ কোটি ৩৩ লাখ ৪৭ হাজার ২০৬ জন এবং হিজড়ার সংখ্যা ১২ হাজার ৬২৯ জন।

পিইসি জরিপ অনুসারে, পুরুষের এনইসি ২.৮১ শতাংশ, সে হিসেবে সমন্বয়কৃত পুরুষের সংখ্যা ৮ কোটি ৪০ লাখ ৭৭ হাজার ২০৩ জন; মহিলার এনইসি ২.৬৯ শতাংশ, সে হিসেবে সমন্বয়কৃত নারীর সংখ্যা ৮ কোটি ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার ১২০ জন। অর্থাৎ পুরুষের তুলনায় নারী বেশি ১৫ লাখ ৭৫ হাজার ৯১৭ জন।

বিবিএস বলছে, হিজড়া জনসংখ্যা খুব কম হওয়ায় তার এনসিই হিসাব করা সম্ভব হয়নি। এ ছাড়া জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এ ১৭ হাজার ৫০৭টি খানার ৮৫ হাজার ৯৫৭ জনের আংশিক তথ্য পাওয়া গেছে, যাদের লিঙ্গসহ অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্য পাওয়া যায়নি। বিষয়টি শুমারির প্রাথমিক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। এই জনসংখ্যারও এনসিই হিসাব করা সম্ভব হয়নি বিধায় তাদেরকে ব্যালান্স পপুলেশন হিসেবে গণনাকৃত ও সমন্বয়কৃত উভয় অংশে যোগ করা হয়েছে।

সমন্বয়কৃত গণনা অনুযায়ী দেশে ২৯ বছরের কম বয়সী অর্থাৎ তরুণ জনগোষ্ঠী মোট জনসংখ্যার ৫৬ দশমিক ৭৭ শতাংশ। অর্থাৎ বর্তমানে দেশে প্রায় ৯ কোটি ৪০ লাখ জনসংখ্যার বয়স ২৯ বছরের কম।

প্রতিবেদনে বয়স ভিত্তিক জনসংখ্যার হিসাবে দেখা যায়, দেশে বর্তমানে ১০ থেকে ১৪ বছর বয়সী জনসংখ্যা ১ কোটি ৬৮ লাখ বা ৯ দশমিক ৯২ শতাংশ, ৪ বছরের কম বয়সী রয়েছে ১ কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার বা ৯ দশমিক ৫৮ শতাংশ।

৫ থেকে ৯ বছর বয়সী জনসংখ্যা ১ কোটি ৫৮ লাখ বা ৯ দশমিক ৩১ শতাংশ; ২০ থেকে ২৪ বছর বয়সী জনসংখ্যা ১ কোটি ৫৫ লাখ বা ৯ দশমিক ১৭ শতাংশ এবং ২৫ থেকে ২৯ বছর বয়সী জনসংখ্যা ১ কোটি ৪৭ লাখ বা ৮ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশে ৩৫ বছরের কম বয়সীর সংখ্যা মোট জনসংখ্যার ৬৪ শতাংশের কিছু বেশি বা ১০ কোটি ৮৭ লাখের কিছু বেশি। সূত্র: ঢাকা টাইমস

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়