বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪
spot_img

সোনারগাঁয়ে র‌্যাবের উপর হামলায় ২১ জনের নামে মামলা

সংবাদ১৬.কমঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের সাদিপুর ইউনিয়নের বরগাঁও চেয়ারম্যানপাড়া এলাকায় গ্রামবাসীর সঙ্গে র‌্যাবের হট্টগোলের ঘটনায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা হয়েছে।

শনিবার (১৮ মার্চ) রাতে র‌্যাব-১১ বিজিও সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার নাসির উদ্দিন বাদি হয়ে ২১ জনের নামে এ মামলা দায়ের করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক তদন্ত মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ।

মামলায় প্রধান আসামী করা হয় গার্মেন্ট কর্মী রোজিনা হত্যা মামলার সন্দেহভাজন আসামী সেলিম মিয়াকে। এ মামলায় এরই মধ্যে নিহত আবুল কাশেমের ছেলে নজরুল ইসলামসহ ছয়জনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। তবে সেলিম মিয়াকে দুটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

গ্রেফতার হলেন সোনারগাঁয়ের বরগাঁও গ্রামের আমীর আলীর ছেলে সেলিম মিয়া (২১), আব্দুল বাতেনের ছেলে রুবেল (৩১), মৃত ইমান আলীর ছেলে হযরত আলী (৩৬), আব্দুল মোতালেবের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (৪২), আবুল কাশেমের ছেলে নজরুল ইসলাম (৪০) ও মৃত মালেকের ছেলে আমানউল্লাহ (৩৮)।

এদিকে ঘটনার দিন র‌্যাব সদস্যরা ২১ জনকে আটক করে নিয়ে যাওয়ার পর তাদের যাচাই বাছাইয়ের পর ১৫ জনকে সন্ধ্যায় ছেড়ে দেয়। তারা রাত ৮ টার দিকে যার যার বাড়িতে পৌঁছান। তবে আটককৃতদের ছাড়িয়ে নিতে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সাংসদ সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল কায়সার আদমজী র‌্যাব কার্যালয়ে যান। তার অনুরোধে ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয় এমন ১৫ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৭ মার্চ দিবাগত রাতে র‌্যাব পরিচয়ে সাদা পোশাকে হত্যা মামলা আসামী গ্রেফতার করতে গিয়ে গ্রামবাসীর সঙ্গে হট্টগোলের ঘটনা ঘটে। এসময় আবুল কাশেম নামের ৬৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ মারা যান। এ ঘটনায় হুমায়ুন কবির, জহিরুল ইসলাম, দ্বীন ইসলাম, কিশোর সাইফুল ইসলাম ও মাহফুজ মিয়া আহত হন।

সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ বলেন, র‌্যাবের ওপর হামলার ঘটনায় ২১ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছে র‌্যাব। এদের মধ্যে ৬ জনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়