শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪
spot_img

একটা ভালো বাজেট হলে ভালো সিনেমা নির্মাণ করা সম্ভব: প্রধানমন্ত্রী

সংবাদ ডেস্কঃ অনুদানের চলচ্চিত্রে টাকার অঙ্ক বাড়ানো হবে। বর্তমানে একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমার জন্য ২৫ লাখ ও স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমার জন্য সরকার ২০ লাখ টাকা অনুদান দেয়। আগামী বাজেটে তা আরও বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হবে। চলচ্চিত্র শিল্পকে উন্নত করার জন্য সরকার ব্যবস্থা নিয়েছে। বেশ কিছু সিনেমা আন্তর্জাতিকভাবে সমাদৃত হয়েছে।

অনুকরণ না করে মানসম্পন্ন সিনেমা তৈরির পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২৫ লাখ টাকা একটি সিনেমার জন্য যথেষ্ট নয়, এটা অনেক কম। এ দিয়ে হয় না। একটা ভালো বাজেট হলে ভালো সিনেমা নির্মাণ করা সম্ভব বলে আমি করি। তাই আগামী বাজেটে এ টাকার পরিমাণ আরও বাড়ানো হবে।

তিনি বলেন, সবার মাঝে আলাদা একটা মেধা ও চিন্তাশক্তি আছে। একটা আর্টিস্টিক ও শৈল্পিক মেধা আছে। তাদের মাধ্যমে জীবনধর্মী সেসব সিনেমা তৈরি হয়, সেগুলো মানুষকে আকর্ষিত করে। অনেক সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও চলচ্চিত্রজগতের সবাই অনেক পরিশ্রম করে যাচ্ছেন, এ জন্য সবাইকে সাধুবাদ জানাই।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, করোনার সময়ে অর্থনৈতিক যে মন্দা ও ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের কারণে সবকিছুর দাম বেড়ে গেছে। মূল্যস্ফীতি দারুণভাবে বেড়েছে। সেখানে সরকার যে অনুদান দিচ্ছে, এটা একটা পূর্ণাঙ্গ চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য যথেষ্ট না। এই অনুদান আরও বাড়াতে হবে। আমি আগামী বাজেটে উদ্যোগ নেব।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, একটা সিনেমা একজন মানুষের জীবনকে পাল্টে দিতে পারে, একটা সমাজকে পাল্টে দিতে পারে। এ ধরনের সিনেমা তৈরিতে মনোযোগ দিতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০২১ বিজয়ীদের হাতে পুরস্কারপ্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন তথ্য ও সম্প্রচার সচিব মো. মকবুল হোসেন।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়