শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪
spot_img

সোনারগাঁয়ে সবজি ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকি ও চাঁদা দাবীর অভিযোগে গ্রেফতার-১

সংবাদ১৬.কমঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের চর-নোয়াগাঁও এলাকায় সবজি ব্যবসায়ীর উপর হামলা ও চাঁদা দাবীর অভিযোগে রুবেল মীর নামের এক পুর্তূগাল প্রবাসীকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

ভুক্তভোগী একই ইউনিয়নের শেখকান্দি এলাকার মৃত রহমত আলীর ছেলে সবজি ব্যবসায়ী আলমগীর বাদী (৪৩) হয়ে গত ২৩ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ আমলী আদালত নং ৫, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে একটি চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করেন। মামলায় ওই ইউনিয়নের চর-নোয়াগাঁও গ্রামের মৃত দেলোয়ার হোসেনের ছেলে রুবেল মীর, শরীফ মীর ও পলাশ মীরকে আসামী করা হয়।

ভুক্তভোগী ও সবজি ব্যবসায়ী আলমগীর জানান, ২০ জানুয়ারি শুক্রবার সকাল ১০ ঘটিকার সময় ধ্বন্দী বাজার এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চর-নোয়াগাঁও এলাকার বাবুল হাজীর দুই ছেলে ওষুধ (ফার্মেসী) ব্যবসায়ী রনি ও রাজু’র উপর উক্ত আসামীরা হামলা চালায়। এক পর্যায়ে আমি তাদেরকে মারামারি করতে নিষেধ করলে আমাকেও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

এলাকাবাসীর সহযোগিতায় আমি সোনারগাঁও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে যাই। হামলা কারীরা ঘটনার দুই দিন পর বাজার থেকে ফেরার পথে রাত ৮ ঘটিকার সময় আমাকে একা পেয়ে চর-নোয়াগাঁও কবরস্থানের পাশে পূনরায় মারধর করতে থাকে। এসময় আমার কাছে থাকা ব্যবসার মূলধন ৩১ হাজার ৫ শত ৫০ টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং আমাকে হকিস্টিক ও লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ি পেটাতে থাকে। এছাড়াও আমাকে হত্যা ও লাশ গুম করার হুমকি দিয়ে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। আমার ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে আসামী রুবেল মীর, শরীফ মীর ও পলাশ মীর পালিয়ে যায়।

এলাকাবাসী জানায়, আসামী রুবেল মীর ও তার আরেক ভাই প্রবাসী পাবেল মীর আমাদের এলাকার প্রায় ১০ জনকে বিদেশে নেওয়ার নাম করে ১ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় সমালোচনার ঝর বইছে। তারা খুবই খারাপ প্রকৃতির লোক, কিছুদিন পরপর দেশে এসে এলাকার নিরীহ মানুষদের বিদেশে নেওয়ার বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নিয়ে ক্ষতিসাধন করে যাচ্ছে। তারা মানুষের কাছ থেকে চাঁদাবাজি করে থাকে। তাদের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুললেই হত্যার হুমকি দেয়।

উল্লেখ্য, এর আগেও তাদের বিরুদ্ধে মারামারি ও লুটপাটের অভিযোগে সোনারগাঁ থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

আরেক মামলার (নং৭৮/২০১৮) বাদী নয়ন মিয়া জানান, গত ২৮ নবেম্বর ২০১৮ তারিখে উক্ত আসামীরা তার বসত বাড়িতে রাতের আধারে অনধিকার প্রবেশ করে ঘরের দরজা ভেঙে স্টিলের আলমারি থেকে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা ও মূল্যবান কাগজপত্র ছিনিয়ে নেয়। এসময় বাদীর স্ত্রীকে মারধর করে শিশু সন্তানদের ভয়ভীতি দেখিয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। তাদের বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানাসহ একাধিক মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে বলেও জানান ভুক্তভোগী নয়ন মিয়া।

সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুব আলম সুমন জানান, রুবেল মীর নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতে প্রেরণ করার প্রস্তুতি চলছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়