মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
spot_img

সোনারগাঁ পৌরসভায় অনুমতি ছাড়াই সরকারি গাছ কেটে বালু ভরাট

সংবাদ১৬.কমঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড দরপত এলাকায় সরকারি ২টি একাশি গাছ ও ১টি নিমগাছ কেটে বালু ভরাটের অভিযোগ উঠেছে ওই এলাকার সাবেক কমিশনার মোঃ শাহজালাল মিয়ার বিরুদ্ধে।

সরেজমিনে গেলে জানা যায়, দরপত আদর্শ কমিউনিটি ক্লিনিকের ভবণটির পিছনভাগে নতুন ভবণ নির্মাণ কাজের জন্য উপজেলা প্রশাসনের অনুমতিক্রমে বালু ভরাটের কাজ করছেন সাবেক কমিশনার মোঃ শাহজালাল।

বালু ভরাট করতে গিয়ে উপজেলা প্রশাসনের কোন অনুমতিপত্র ছাড়াই সরকারি বড়বড় তিনটি গাছ কেটে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে সাবেক এই কমিশনার।

এ বিষয়ে ওই এলাকার মৃত রমিজ উদ্দিন প্রধানের ছেলে ক্লিনিকের জমিদাতা রমজান আলীর চাচাতো ভাই মোঃ মজুল মিয়া জানান, আমরা ক্লিনের জন্য জমি দান করেছি কিন্তু বর্তমানে গাছ কাটার বিষয়টি আমাদের জানা নেই। এটা কমিশনার শাহজালাল’ই করছেন। তিনি বলেন, এই ক্লিনিকটি ১৯৯৮ সালে নির্মাণ করা হয়। ক্লিনিকের ভবনটি তুলনামূলকভাবে ছোট হওয়ার কারনে এই এলাকার জনসাধারনের স্বার্থে নতুন ভবণ নির্মাণ করা অতীব জরুরী।

এ বিষয়ে সাবেক কমিশনার মোঃ শাহজালাল মিয়ার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, উপজেলা প্রশাসন আমাকে ডেকে নিয়ে বালু ভরাটের কাজটি করার অনুমতি দেয়। গাছ কাটার বিষয়ে তিনি বলেন, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে নিয়ে সবার সম্মতিক্রমেই গাছগুলো কাটা হয়েছে, এখানে আমার একার কোন স্বার্থকতা নেই। তাছাড়া গাছ কেটে কোথায়, কিভাবে, কত টাকায় বিক্রি করা হয়েছে সেটাও আমার জানা নেই!

জানতে চাইলে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকরতা ডাঃ সাবরিনা হক বলেন, এ বিষয়টি আমার জানা নেই। এটা আমার ডিপার্টমেন্ট’র সাথেও সম্পৃক্ত নয়।

সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রেজওয়ান উল ইসলাম বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকের বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে গাছ কাটার ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসন থেকে কোন অনুমতি দেওয়া হয়নি। অনুমতি দিলে অবশ্যই আমি জানতাম! বিনা অনুমতিতে সরকারি গাছ কাটা আইনগত অপরাধ বলেও জানান তিনি।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়