শুক্রবার, মে ২৪, ২০২৪
spot_img

যেভাবে খালেদা জিয়ার ঈদ কাটবে ফিরোজা’য়

সংবাদ সিক্সটিনঃ বুধবার ১০ এপ্রিল বিএনপি চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার কথা বলতে গিয়ে জানান, শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা‘য় ঈদ উদযাপন করবেন খালেদা জিয়া। সকালে ছোট ভাইসহ কয়েকজন নিকটাত্মীয় বাসায় আসবেন, তাদের নিয়ে ঈদের সময় কাটবে তার। রাতে দলের সিনিয়র নেতারা ঈদের সালাম জানাতে আসবেন ফিরোজায়।

তিনি বলেন, ম্যাডাম অসুস্থ, গুলশানের বাসায় মেডিকেলে বোর্ডের অধীনে চিকিৎসাধীন আছেন। বোর্ডের চিকিৎসকদের সার্বক্ষনিক মনিটরিংয়ে আছেন তিনি। ঈদের দিনে ঢাকায় উনার যেসব নিকট আত্বীয়-স্বজন আছেন উনারা বাসায় দেখা-সাক্ষাত করতে আসবেন। তাদের নিয়ে সময় কাটাবেন ম্যাডাম। লন্ডন থেকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান উনার ছেলে তারেক রহমান, তার সহধর্মিনী ডা. জোবায়েদা রহমান ভার্চুয়ালি কথা বলবেন। উনার এবারকার ঈদটা এরকমই। এর আগের কয়েকটি ঈদে লন্ডন থেকে খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শার্মিলা রহমান সিঁথি এবং তার দুই মেয়ে জাহিয়া রহমান ও জাফিয়া রহমান ঢাকায় এসেছিলেন। খালেদা জিয়ার তাদের নিয়ে ঈদ উদযাপন করেছেন। এবার তাদের কেউ আসেননি। তবে বড় বোন প্রয়াত খুরশীদ জাহান হকের যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও জাপানে প্রবাসী তিন ছেলে এবং আরেক বোনের ছেলে-মেয়ে ঢাকায় এসে খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করে চলে গেছেন এই রোজার মধ্যেই।

খোঁজ-খবর নিয়ে জানা গেছে, ঢাকায় আছেন খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার ও স্ত্রী কানিজ ফাতেমা, ছেলে অভিক এস্কান্দারসহ কয়েকজন নিকটাত্মীয়। ঈদের দিন তারা ফিরোজা‘য় আসবেন, দুপুরে তাদের বাসা থেকে রান্না করা খাবার খাবেন খালেদা জিয়া।

জাহিদ জানান, ঈদের দিন রাত ৮টার দিকে দলের মহাসচিবসহ স্থায়ী কমিটির সদস্যরা ম্যাডামকে ঈদের সালাম জানাতে আসবেন। ৭৯ বয়েসী সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন ধরে লিভার সিরোসিস, কিডনি, ফুসফুস জটিলতা, ডায়াবেটিক, আর্থ্রাইটিস, হৃদরোগসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছেন। হঠাৎ শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কয়েক বার এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে নিয়ে চিকিৎসা নিতে হয়েছে তাকে। সর্বশেষ গত ৩০ মার্চ গভীর রাতে গুলশানের বাসায় হঠাৎ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে বিএনপি চেয়ারপারসনকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনদিন ক্রিটিকাল কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) চিকিৎসা নিয়ে তিনি বাসায় ফেরেন ২ এপ্রিল।

অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের নিয়ে গঠিত একটি মেডিকেল বোর্ড সার্বক্ষনিক তার চিকিৎসার দেখভাল করছেন বলেও জানান তিনি। সূত্র: রূপালী বাংলাদেশ

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়