সোমবার, জুলাই ১৫, ২০২৪
spot_img

ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত ৪, থানায় মামলা

সংবাদ সিক্সটিনঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে ৪ ডাকাত নিহত ও একজন আহতের ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ১৯ মার্চ মঙ্গলবার সকালে সোনারগাঁ থানার এসআই মোঃ মামুন খাঁন বাদি হয়ে কয়েক শতাধিক অজ্ঞাত নামা আসামি করে এ মামলাটি দায়ের করেন। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মোহসিন। নিহত ডাকাতদের মরদেহ মায়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর পক্রিয়া চলছে বলে জানায় পুলিশ।

এর আগে উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বাঘরী ও সাদিপুর ইউনিয়নের কাজহরদী এলাকার বড় বিলে ডাকাত ঢুকেছে এমন খবর বিভিন্ন মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিলে ১০ গ্রামের মানুষ চারদিক থেকে ডাকাতদের ঘিরে ফেলে। এসময় এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে ঘটনাস্থলে ৩ জন ডাকাত নিহত হয়। আরও একজন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়। বাকি একজনকে ঢাকার পুঙ্গু হাসপাতালে বর্তমানে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানা পুলিশ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। এমন খবর এলাকায় ছড়িয়ে পরলে গ্রামবাসীর মধ্যে গ্রেফতার আতঙ্ক বিরাজ করছে এবং গ্রাম হয়ে যাচ্ছে পুরুষ শূণ্য।

গত রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বাঘরী ও সাদিপুর ইউনিয়নের কাজহরদী এলাকায় ‘ডাকাত ঢুকেছে’ এমন  খবর বিভিন্ন মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিলে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ডাকাতদের চারদিক ঘিরে গণপিটুনী দেয়। এতে চারজন ডাকাত গণপিটুনীতে নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আরও একজন ডাকাত হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। গত সোমবার সকালে পুলিশ বড় বিল ও নলীবিল থেকে নিহত তিন ডাকাতের লাশ উদ্ধার করে। নিহতদের মধ্যে ডাকাত জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে ৬টি ডাকাতির মামলা রয়েছে। বাকী নিহত তিন জনের বিরুদ্ধে সোনারগাঁ ও আড়াইহাজার থানাসহ একাধিক ডাকাতি মামলা রয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়