শনিবার, মার্চ ২, ২০২৪
spot_img

ফতুল্লায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

সংবাদ সিক্সটিনঃ নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার সকালে নগরীর খাঁনপুর ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ৷ এর আগে রোববার রাত আনুমানিক সারে ১১ টায় সদর উপজেলা ফতুল্লার লাকী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জেসমিন বেগম চাঁদপুর উত্তর মতলব থানার দশআনী গ্রামের মৃত গোলাম মোস্তফার মেয়ে। তিনি স্বামীর সঙ্গে লাকী বাজার এলাকায়  দুই সন্তান নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে থাকতেন।

পুলিশ ও স্বজনরা জানায়, নিহতের চারভাই প্রবাসী হওয়ায় তার কাছে নানা অজুহাতে টাকা চাইতেন নিহতের স্বামী আলী হোসেন। ১০ দিন আগেও জেসমিনকে টাকার জন্য মারধর করা হলে তিনি তার মেজো ভাইকে ঘটনাটি জানায়৷ এ নিয়ে রাতে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। রোববার  রাতে নিহতের পরিবারকে জেসমিনের স্বামী ফোন করে জানায় সে মারা গেছে, তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। পরে পরিবারের লোকজন এসে নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে পুলিশে খবর দেয়।  পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় হাসপাতালের ফটকে আহাজারি করে নিহতের বোন দাবি করেন তার বোনকে পিটিয়ে ও আঘাত করে হত্যা করেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজন৷ তিনি তার বড় বোনকে হত্যায় জড়িতদের শাস্তি দাবি করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি নুরে আজম বলেন, নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে, তবে তার মৃত্যু কিভাবে হয়েছে ময়নাতদন্তের পর নিশ্চিত বলা যাবে। নিহতের মরদেহ হাসপাতাল থেকে উদ্ধারের পর নারায়ণগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বজনরা অভিযোগ করলে পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা নেবে পুলিশ। নিহতের স্বামীসহ স্বজনের খোঁজ নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়