সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
spot_img

আমার কাছে অর্থ সম্পদ নেই, আপনাদের দোয়া ও ভালবাসা আছে: এমপি খোকা

সংবাদ সিক্সটিনঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের শেষ মুহুর্তে জামপুর ও কাচপুরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের পাড়া মহল্লায় লাঙ্গলের প্রচারণা করেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও লাঙ্গল মার্কার প্রার্থী লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, ক্ষমতায় আসলে সোনারগাঁয়ের প্রতিটি ইউনিয়নে একের অধিক এমপি ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যক্তি তৈরি হবে। এতে আপনাদের উপর জুলুম অত্যাচার ও রাহাজানি বৃদ্ধি পাবে। কিন্তু গত ১০ বছরে আমি কোন উশৃংখল আচরণের নেতা কর্মী তৈরি করিনি। তাই বিবেককে ব্যবহার করে সিদ্ধান্ত আপনাদেরই নিতে হবে এবং আপনাদের সিদ্ধান্তেই আগামী পাঁচ বছরে আপনাদের সেবক নির্বাচিত হবে।

বৃহস্পতিবার (৪ জানুয়ারি) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলার জামপুর ও কাচঁপুর ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচারণা ও গণসংযোগে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমি দশ বছরে সংসদ সদস্যর দায়িত্বে থাকাকালীন সোনারগাঁ ছিলো শান্তি শৃঙ্খলার জনপদ। এই দশ বছরে সোনারগাঁয়ে জমি দখল, মারামারি, হত্যা, ইভটিজিং ও মাদক মুক্ত রাখার সর্বাত্মক চেষ্টা করেছি। বিগত দশ বছরে আমি কোন সম্পদ গড়তে পারিনি। আমার স্ত্রীর ফ্ল্যাট বিক্রি করে সোনারগাঁয়ে করোনাকালীন সময়ে অসহায় মানুষদের মাঝে উপহার হিসেবে খাদ্য ও স্বাস্থ্য সচেতন সামগ্রী বিতরণ করেছি। আজকে নিজের পৈতৃক মার্কেট বিক্রি করে নির্বাচন করছি। আমার কাছে অর্থ সম্পদ নেই, আপনাদের দোয়া পেয়েছি। আপনারা যে স্নেহ ভালোবাসা দিয়েছেন এতে আমি তৃপ্ত। জয় পরাজয় আল্লাহ পাক ভালো জানেন, তবে আমার অনুরোধ সামান্য কিছু টাকার জন্য নিজের বিবেক বিক্রি করবেন না, ভোট আপনার পবিত্র আমানত এটা একজন ভালো মানুষকে দিবেন।

এমপি খোকা বলেন, আমি মিথ্যা আশ্বাস দিবোনা।এই সোনারগাঁয়ের মা- বোনদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে বৈধ গ্যাসের জন্য আবেদন করেছি। প্রয়োজনে আমি আপনাদের সকলকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যাবো।

সোনারগাঁয়ে আমার হাত ধরে ৭৫টি স্কুলের কাজ সম্পন্ন হয়েছে বাকি ৩৮টি চলমান রয়েছে। এছাড়া ৫৭টি বড় এবং ছোট ব্রিজ সম্পন্ন হয়েছে। তাছাড়া রাস্তা, মাদ্রাসা, মসজিদ তো রয়েছেই। আমার এই দশ বছরের দায়িত্ব কালীন সময়ের আগেও সংসদ সদস্য ছিলেন তারা কি করেছে তা আপনারাই ভালো জানেন।

এদিকে লিয়াকত হোসেন খোকার সহধর্মিনী ডালিয়া লিয়াকত একই দিনে শম্ভুপুরার চর কিশোরগঞ্জ এলাকায় বিভিন্ন স্থানে জাপা নেতা ও জাতীয় মহিলা পার্টির নেতৃবৃন্দদের নিয়ে লাঙ্গলের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা করেন।

এসময় গণসংযোগে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় সহ সভাপতি এম এ জামান, পৌর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম সফি, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাতীয় পার্টি নেতা হাজী আহমদ হোসেন হিরু, জেলা জাতীয় পার্টি যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী জাবেদ রায়হান জয়, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি নারায়ণগঞ্জ মহানগর সভাপতি ফয়সাল আহমেদ ভূইয়া, জামপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি সভাপতি আশরাফুল ভূইয়া মাকসুদ, ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি সহ সভাপতি মনির মেম্বার, ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি সাধারণ সম্পাদক মোতালেব ভূইয়া মেম্বার, মনির মেম্বার, নুরে আলম শাহীন মেম্বার, নাসির মেম্বার প্রমুখ।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, বদিউজ্জামাল বদু মেম্বার, মিলন মেম্বার, সোনারগাঁ উপজেলা মহিলা জাতীয় পার্টির উপদেষ্টা জায়েদা আক্তার মনি, জাতীয় মহিলা পার্টি উপজেলা আহবায়ক নাছিমা আক্তার পলি, সদস্য সচিব নারগিস আক্তার, যুগ্ম আহবায়ক নাসরিন আক্তার পান্না, হনুফা বেগম, পৌর জাপা নেতা হাসান ইমাম, শিল্পী আক্তার ও হাসিনা বেগম প্রমুখ।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়