সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
spot_img

বন্দরে ভূমিদস্যু সোহেল মেম্বারের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

বন্দর প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়ন লাঙ্গলবন্দ এলাকার ভুমিদস্যু সোহেল মেম্বারের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী রেবেকা সোহেল মেম্বার (৩৮), মো: জুয়েল (৩৬), মোসাৎ লাকি সর্ব পিতা মোস্তফা ও শাহিদা (৬৫) স্বামী-মোস্তফা, সর্ব সাং-লাঙ্গলবন্দ সহ অজ্ঞাত আরো পাঁচ জনকে বিবাদী করে বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ দায়ের করার পরও থেমে থাকেনী বিবাদী সোহেল মেম্বার। পরদিন প্রশাসনকে ম্যানেজ করে বাদীনীর পরিবারের বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা করে। এমনকি আবুল কাসেম চৌধুরী (৬৫) ও তার স্ত্রী আছমা বেগম (৫৫) কে মারধর করে আহত করে বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

থানায় অভিযোগ সূত্রমতে, মুছাপুর ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ড সোহেল মেম্বার গত ৩০-১২-২৩ ইং তারিখ পূর্ব শত্রুতার জেড়ে লাঙ্গলবন্দ নন্দিবাড়ি এলাকায় অবস্থিত বিবাদী রেবেকার বসত বাড়ির সামনের গেট ও পশ্চিম পাশের দেয়াল রাতের অন্ধকারে ভেকু দিয়ে ভেঙে ফেলে। এ সময় বাদী সামনে আগাইয়া গিয়ে কারন জানতে চাইলে বিবাদী সোহেল মেম্বার ও তার মাতা শাহিদা বেগম তার উপর রাগে ক্ষিপ্ত হয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে।

বাদীনীর দুই বোন জুলিয়া ও সুবর্নাকে ৫নং বিবাদী কিল ঘুষি ও চর থাপ্পড় মারিয়া নিলাফুলা যখম করে।এমনকি ১নং বিবাদী সোহেল মেম্বার তার ক্ষমতার বলে অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে বাদীর সিমানার দেয়াল ভেঙ্গে নিজের দখলে নিয়ে নতুন করে দেয়াল নির্মান করে এবং হুমকি প্রদান করে যে ভবিষ্যতে কোন প্রতিবাদ করলে হত্যা সহ খুন ঘুম করিয়া ফেলবে। এমতাবস্থায় বাদী নিজের জীবনের নিরাপত্তায় প্রশাসনের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা চান। সেই সাথে ভূমিদস্যু সোহেল মেম্বারের হাত থেকে নিরীহ রেবেকা ও তার পরিবারের সম্পত্তি রক্ষা পায়।

তবে এ বিষয়ে সোহেল মেম্বারের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কারো জায়গা জমিতে হাত দেইনি। জনগনের চলাচলের সুবিধার্থে রাস্তার উন্নয়নের জন্য দেয়াল ভেঙ্গেছি। তাছাড়া মেম্বারের নিজের জাগায়ই নতুন দেয়াল নির্মান করছেন বলে তিনি জানান।

অভিযোগের বিষয়ে বন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ আবু বকর সিদ্দিক এর মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়