রবিবার, মে ১৯, ২০২৪
spot_img

গৃহবধূকে গণধর্ষণের ভিডিও ধারণ, গ্রেফতার-১

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় স্বামীর সড়ক দূর্ঘটনার খবর দিয়ে মোবাইল ফোনে ডেকে এনে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে মোবাইল ফোনে ধর্ষনের দৃশ্য ধারন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় রিয়াজ (২০) নামক এক ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ফতুল্লা মডেল থানার পাগলা শান্তি নিবাস এলাকায় ঘটেছে।

ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ রিয়াজসহ দুই জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো তিন জনকে অভিযুক্ত করে ফতুল্লা মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ঘটনাটি বৃহস্পতিবার সকালে ঘটলেও গৃহবধূ রাতে এসে ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ রাতেই রিয়াজকে গ্রেফতার করে।

জানা গেছে, গৃহবধূর স্বামী ফেরি করে ভাঙ্গারী সংগ্রহ করে। তারা এক সময় পাগলা পূর্বপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করতো। সেই সুবাদে রিয়াজ ও অভিযুক্ত রাকিবের (২০) সাথে তাদের পূর্ব পরিচয় ছিলো। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে রিয়াজ ফোন করে বাদীর স্বামী কোথায় আছে জানতে চেয়ে তাকে জানায় যে তার স্বামী সড়ক দূর্ঘটনা করেছে এবং পাগলা এলাকায় আছে। সংবাদ পেয়ে বাদী তার ৫ বছর বয়সী সন্তানকে নিয়ে দ্রুত পাগলা সূর্য সিনেমা হলের সামনে আসলে সেখান থেকে রিয়াজ তাকে পাগলা শান্তি নিবাস এলাকার একটি বাড়ীতে নিয়ে যায় এবং বলে যে সেখানকার একটি বাসার ভিতর বাদীর স্বামী শুয়ে আছে।

বাদী শিশু পুত্রসহ ওই ঘরে প্রবেশ করে দেখেন অভিযুক্ত রাকিবসহ অপর তিন যুবক সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করছে। পরবর্তীতে বাদীর কোলে থাকা শিশু পুত্রকে নিয়ে অজ্ঞাত নামা এক যুবক ঘরের বাইরে বের হয়ে যায়। গ্রেফতারকৃত রিয়াজসহ অপর তিনজন ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে বাদীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণকারীরা ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করে। বাদী অসুস্থ হয়ে পড়লে দুপুর একটার দিকে দরজা খুলে দিয়ে শিশু পুত্রকে কোলে তুলে দিয়ে বাসায় পাঠিয়ে দেয় এবং কাউকে ঘটনাটি না বলার জন্য হুমকি প্রদান করে।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূরে আযম মিয়া জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলার এজাহারনামীয় এক আসামীকে গ্রেফতার করেছি। অভিযুক্ত অপর আসামীদের গ্রেফতারের চেস্টা করা হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়