সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪
spot_img

অবরোধ সমর্থনে সোনারগাঁয়ে মান্নান সমর্থকরাই ছিলো সক্রিয়

সংবাদ সিক্সটিনঃ বিএনপি-জামায়াতের ডাকা তিনদিন অবরোধের আজ বৃহস্পতিবার ছিলো শেষ দিন। অবরোধকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানা পুলিশ ছিলো সোচ্চার। উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশ, র‍্যাব ও বিজিবিসহ আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ বিএনপি-জামায়াতের নাশকতা ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে ছিলো।

নারায়ণগঞ্জ-৪ সোনারগাঁয়ের সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল কায়সার, সহ-সভাপতি মোশাররফ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ মোঃ সোগাগ রনি, আওয়ামীলীগ নেতা এরফান হোসেন দীপ ও দীপক কুমার বনিক দীপুসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ তাদের শতশত নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দখলে রেখে প্রতিদিন অবরোধ বিরোধী কর্মসূচি পালন করতে দেখা গেছে। বিশেষ করে সোনারগাঁয়ের ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট কাঁচপুর এলাকায় প্রতিদিন পুলিশি পাহাড়া ছিলো উল্লেখযোগ্য।

টায়ারে আগুন, কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর, আগুন দিয়ে গাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া ও শেষ দিন নৌপথ-সড়কপথে সোনারগাঁ থানা বিএনপির সভাপতি আজহারুল ইসলাম মান্নানের সমর্থকরা অবরোধ সমর্থনে কঠোর ভূমিকায় থাকলেও তৃতীয় দিনে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে তেমন কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। সোনারগাঁয়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির অন্যতম সসস্য ও থানা বিএনপির সভাপতি আজহারুল ইসলাম মান্নান সমর্থিত নেতাকর্মীরা ছাড়া অন্যকারো ব্যানারে হরতাল অথবা অবরোধ পালন করতে দেখা যায়নি।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়