শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪
spot_img

আওয়ামীলীগ নেতাকে কুপিয়ে ক্ষত-বিক্ষত, এলাকায় উত্তেজনা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নারাণণগঞ্জের আড়াইহাজারে উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেনকে কুপিয়ে ক্ষত বিক্ষত করা হয়েছে। আশংকাজনকভাবে তাকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে আইসিওতে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সোমবার (২ অক্টোবর) রাত পৌনে ১০ টার দিকে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের বালিয়াপাড়া এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আড়াইহাজার উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন প্রতিদিনের মত বালিয়াপাড়া বাজার এলাকায় দলীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সাথে আলোচনা শেষে সবাইকে বিদায় দিয়ে বাড়ি ফিরে থাকেন। দলীয় কার্যালয় থেকে তার বাড়ির দুরত্ব আধা কিলোমিটারেরও কম। সোমবার রাত পৌনে দশটার দিকে দলীয় কার্যালয়ে সকলকে বিদায় দিয়ে রিক্সা করে নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছাতে না পৌঁছাতেই মুখোশধারী একদল দুর্বৃত্ত তার চোখে লাইট মেরে ধাড়ালো দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। এসময় এলোপাথাড়ি দায়ের কুপে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়। তার আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন বেড়িয়ে আসার পুর্বেই দুবৃর্ত্তরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পরে তাকে উদ্ধার করে  আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। পরে স্বজনরা আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেনকে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করে।

ঘটনার খবর শুনে সোমবার মধ্যরাতে ছুটে যান স্থানীয় সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। হাসপাতালের চিকিৎসকদের কাছ থেকে আহত দেলোয়ারের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন এবং সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

দেলোয়ার হোসেনের ছোট ভাই জাকির হোসেন জানান, ভাইয়ের (দেলোয়ার হোসেন) অবস্থা খুবই গুরুতর। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। তাকে আইসিউতে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

কারা এই হামলা করেছে জানতে চাইলে জাকির হোসেন বলেন, ‘‘দেলোয়ার ভাই সংজ্ঞাহীন অবস্থায় আছেন। তার জ্ঞান ফিরলে তিনি বলতে পারবেন কারা তাকে কুপিয়েছে। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। তবে এমপি মহোদয় হাসপাতালে এসে খোঁজখবর নিয়েছেন। এ ঘটনায় জড়িতদের বিচারের বিষয়ে আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন।

এদিকে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইনের নেতৃত্বে বালিয়াপাড়া এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। মিছিলটি বালিয়াপাড়া বাজারসহ আশপাশের সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মিছিলে উপজেলা পৌরসভা, ইউনিয়র ও ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অংশ নেয়। সমাবেশে নেতাকর্মীরা এ ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়ে সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানায়।

আড়াইহাজার থানার ওসি (তদন্ত) হুমায়ুন কবির মোল্লা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। কি কারণে আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ারের উপর এ হামলা হয়েছে সে বিষয়ে পুলিশসহ একাদিক আইন শৃঙ্খলাবাহিনী তদন্ত করছে। কারা এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে ভিকটিম যেহেতু আইসিওতে চিকিৎসাধীন একটু স্বাভাবিক না হলে কোন কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে এ ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেফতারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলেও জানান তিনি।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়