বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪
spot_img

শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে সরকার নানা সুযোগ সুবিধা প্রদান করছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেছেন, পার্বত্য এলাকার শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সমতলের মত পার্বত্য এলাকার শিক্ষার উন্নয়ন হচ্ছে আর বান্দরবানসহ তিন পার্বত্য জেলায় অসংখ্য স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে ওঠছে। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য অঞ্চলের পিছিয়ে পড়া ছাত্র-ছাত্রীদের মেধা বিকাশ ও তাদের পরিবারের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়নে নানা সুযোগ সুবিধা প্রদান অব্যাহত রেখেছেন।

গতকাল বান্দরবান সদর উপজেলার জামছড়ি ইউনিয়নের রামজাদি এলাকায় পার্বত্য জেলা পরিষদের স্কুল এন্ড কলেজের একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এসব কথা বলেন

মন্ত্রী বীর বাহাদুর আরও বলেন, পার্বত্য জেলাগুলোর শিক্ষার পরিবেশের উন্নয়ন হয়েছে এবং শিক্ষা লাভের ক্ষেত্র সম্প্রসারিত হয়েছে। সরকার পার্বত্য এলাকায় শিশু ও তাদের পরিবারের নিকট মৌলিক সামাজিক সেবা পৌঁছে দিতে ৪৮০০ পাড়াকেন্দ্র নেটওয়ার্ক সৃষ্টি করেছে। মন্ত্রী বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতা আর সুদৃষ্টির কারণে পাহাড়ে এখন অসংখ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠছে আর এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা গ্রহণ করে এখন অনেকেই অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হচ্ছে। পার্বত্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার বছরের প্রথমদিন শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিচ্ছে আর সেই সাথে বিনামুল্যে বিদ্যালয়ে লেখাপড়ার সুযোগের পাশাপাশি অসংখ্য শিক্ষকের নিয়োগ দিয়েছে। আওয়ামীলীগ সরকার একটি শিক্ষাবান্ধব সরকার বলে মন্তব্য করে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং আগামীতেও এই সরকারের পাশে সকলকে থাকার আহবান জানান এবং শিক্ষার উন্নয়নে সবাইকে কাজ করার অনুরোধ জানান।

এসময় পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে বান্দরবান সদর উপজেলার জামছড়ি ইউনিয়নের রামজাদি এলাকায় বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ স্কুল এন্ড কলেজের একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন এবং পরে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে ২কোটি টাকা ব্যয়ে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য একটি হোস্টেল ভবনের নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর করেন।

পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা, সিনিয়র সহকারী কমিশনার মো.মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.শাহআলম,পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী মো.জিয়াউর রহমান,পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছির আরাফাত, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ,মোজাম্মেল হক বাহাদুরসহ পার্বত্য জেলা পরিষদ স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক,ছাত্র ছাত্রীরা এবং সরকারী বিভিন্ন দফতরের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়