বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪
spot_img

গ্যাসলাইন লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ, নিহত ২ আহত ২

আড়াইহাজার প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে অবৈধ গ্যাসের লাইন লিকেজ থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় দগ্ধ হয়েছেন চারজন। এদের মধ্যে তিনজনই নারী। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে উপজেলা সদরের দিঘিরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আড়াইহাজার পৌরসভার দিঘিরপাড় এলাকার সরকারি সফর আলী কলেজের পুর্বপাশে ছানাউল্লাহ নামে এক ব্যক্তির ভবনের চতুর্থ তলায় ফ্লাটে হাসিনা মমতাজ তার পরিবার পরিজন নিয়ে ভাড়া থাকেন। তাদের ভাড়া বাসায় তিতাস গ্যাসের পাইপলাইন থেকে অবৈধভাবে পাইপ টেনে গ্যাস দেয় একটি চক্র। বিগত কিছুদিন ধরে ওই পাইপ থেকে চারতলার কক্ষটিতে গ্যাস লিক করছিল। পরে শুক্রবার ওই কক্ষে মোবাইল চার্জ দেওয়ার সময় বৈদ্যুতিক স্পার্ক হলে জমে থাকা গ্যাসের মাধ্যমে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। এতে করে ওই ভবনে বসবাসকারীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে আড়াইহাজার ফায়ার সার্ভিসের দুই ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে স্থানীয়দের সাথে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

বিস্ফোরণে আঃ রহমান মিয়া (৪৫), চায়না বেগম (৩৫), হাসিনা মমতাজ (৫৫) ও তার মেয়ে নিপা আক্তার (২৫) অগ্নিদগ্ধ হন। তাৎক্ষণিক তাদের আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের অবস্থা আশলঙ্কাজনক হওয়ায় ঢাকায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে রেফার করে। এদের মধ্যে বার্ণ ইউনিটে নিপা আক্তার ও চায়না বেগম মারা গেছেন বলে জানা গেছে।

ওই ভবনের দোতলার ভাড়াটিয়া জাকির হোসেন জানান, রাত ১১ টার দিকে বিকট শব্দ পেয়ে প্রথমে মনে করেছিলাম ভুমিকম্প হচ্ছে। দ্রুত পরিবার নিয়ে ভবন থেকে নিচে নেমে নিরাপদ স্থানে সরে যাই। পরে দেখি চারতলায় আগুনের ধোয়া। তখন বুঝতে পারি অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ও পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আসে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আড়াইহাজার থানার ওসি ইমদাদুল ইসলাম তৈয়ব বলেন, অগ্নিদগ্ধ চার জনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়েছে। দগ্ধদের মধ্যে দুইজন চিকিৎসাধিন অবস্থায় মারা গেছেন বলেও জানান তিনি।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়