শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪
spot_img

জনজীবনে ভোগান্তি, কর্তা ব্যক্তিরা তাঁকিয়ে আছে বড় বাজেটের অপেক্ষায়

মো.মাইনুল ইসলামঃ সাভার উপজেলার পৌর এলাকায় সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার মধ্যে অন্যতম একটি থানা রোডের রাস্তাটি খানাখন্দে বেহাল অবস্থায় জনসাধারণের ভোগান্তি চরমে দাড়িয়েছে।

সরে জমিনে গিয়ে দেখা যায়, যেখানে রয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সাভার মডেল থানা, সাব রেজিস্ট্রি অফিস, সাভার বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, শতবর্ষ ঐতিহ্যবাহী অধর চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় ও বাংলাদেশের অন্যতম মেডিকেল কলেজ এনাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল। যেখানে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার মানুষের চিকিৎসা সেবা নিতে জরুরী ভিত্তিতে যাতায়াতের প্রয়োজন হয়। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, এই রাস্তাটি খানাখন্দে বেহাল দশা হয়ে পড়েছে। সাধারণ মানুষ অসহায় হয়ে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে সড়কটি দিয়ে।

চিকিৎসা সেবা নিতে আসা বেশ কয়েকজনের সাথে আলাপ করে জানা যায়, তাদের জন্য ভোগান্তির অন্ত নেই, দীর্ঘদিন যাবত এই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি চলাফেরার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। রাস্তা দিয়ে কোন অসুস্থ রোগী হাসপাতালে আনা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। রাস্তায় বড় বড় খানাখন্দে ভরা এবং বেহাল অবস্থা।

মফিজুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি ধামরাই থেকে রোগী নিয়ে এসে বলেন, গাড়িতে আমার ভাইকে নিয়ে এই রাস্তা দিয়ে আসার সময় ঝুঁকিতে অবশেষে হাসপাতালে নেওয়ার আগেই মারা যায়। তাছাড়া স্থানীয় যে সকল মানুষ এখান দিয়ে নিয়মিত চলাচল করেন তারা বলেন, আমাদের এই রাস্তাটি নিয়ে চরম ভোগান্তিতে আছি। আমরা চলাফেরা ঠিকঠাক মত করতে পারছিনা  ও স্কুল কলেজ শিক্ষার্থীরা, হাসপাতালে আসা রোগি, সাধারণ মানুষ রিকশা ভ্যান প্রাইভেট নিয়ে রাস্তায় চলাফেরায় খুবই অসুবিধা এবং ভোগান্তিতে পড়তে হয়। এমনকি একটু বৃষ্টি হলেই  পানি জমে যায় তখন তো আরো ভোগান্তি হয়। আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যেন এই রাস্তাটি দ্রুত সময়ের মধ্যে সংস্কার করে জনসাধারণের চলাচলের উপযোগী করে দেন।

সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তিনি বলেন, এ রাস্তাটি দীর্ঘদিন যাবত এভাবে পড়ে আছে। কিন্তু চরম দুঃখের সাথে বলতে হয় এটা যেন দেখার কেউ নেই। হয়তো কর্তা ব্যক্তিরা তাকিয়ে আছে নতুন কোন বাজেটের অপেক্ষায়, অথবা নতুন কোন বরাদ্দের অপেক্ষায়। কিন্তু জনসাধারণের ভোগান্তির চিন্তা কেউ করে না।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়