সোমবার, জুলাই ১৫, ২০২৪
spot_img

ভেজাইল্যা সুলতান ও কামালের বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইমে অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টারঃ পত্রিকায় বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করায় দৈনিক রুদ্রবার্তা ও রুদ্রকণ্ঠ পত্রিকার সম্পাদক শাহআলম তালুকদারের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা মোকদ্দমার হুমকী ও অপপ্রচারের প্রতিবাদ জানিয়ে ১১ মে রাতে অবশেষে নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় ভেজাইল্যা সুলতান ও কামাল প্রধানের বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইমে অভিযোগ দায়ের করা হয়। জিডি নং-৬১৮।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, বেশ কয়েকদিন যাবত হুমকী ধামকি ও শাহআলম তালুকদারের বিরুদ্ধে ফেসবুকে মানহানীকর অপপ্রচার চালাচ্ছে। গত ১ মে রাতে কামাল প্রধানের ফেসবুক আইডি ও ফেক আইডি দৈনিক আজকের নীলকণ্ঠ সহ কামাল প্রধান সমর্থক গোষ্ঠি এবং দৈনিক আজকের রিপোর্ট থেকে সম্মানহানীকর অপপ্রচার চালায়। মলম বিক্রেতা কথিত সম্পাদক শাহআলমকে বন্দর থানায় আটক রেখে জিজ্ঞাসাবাদ শিরোনামে তাদের ফেসবুক আইডিতে মিথ্যা অপপ্রচার চালায়।

সুলতান মাহমুদের ফেসবুক আইডি থেকে গত ৯ মে শাহআলমের ছবি ব্যবহার করে অপপ্রচার চালাচ্ছে এবং মিথ্যা মামলা মোকদ্দমার ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। এছাড়া সুলতান মাহমুদের অনলাইন নিউজ পোর্টাল সময়ের চিন্তা ডটকম ও সময়ের চিন্তা টিভিতে অবৈধ ও ভুয়া সম্পাদক শাহআলমের বিচার শিরোনামে মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করে। বর্তমানে অদ্যবধি ভেজাইল্যা সুলতান মাহমুদ ও প্রতারক কামাল প্রধানের ফেসবুক আইডিতে দৈনিক রুদ্রবার্তা ও রুদ্রকণ্ঠ পত্রিকার সম্পাদক শাহআলম তালুকদারের চরিত্র হনন করছে এবং তাদের অব্যাহত অপপ্রচারে তিনি চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে ও ক্ষয়-ক্ষতির আশংকা করছে।

উল্লেখ্য যে, জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশনের নাম ব্যবহার করে সুলতান মাহমুদ ও কামাল প্রধান বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি দপ্তরে নামে বেনামে চিঠি দিয়ে অনৈতিক সুবিধা পাওয়ার জন্য চাঁদাবাজি করে আসছে। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মামলা অভিযোগ ও সাধারণ ডায়েরী রয়েছে। এছাড়া নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছেও একাধিক লিখিত অভিযোগ রয়েছে। সমাজের বিশিষ্টজদের নিয়েও অপপ্রচার চালাচ্ছে নিয়মিত।

এদিকে প্রতারক কামাল প্রধান পলাতক থেকে বিভিন্ন ফেসবুক আইডি দিয়ে মানুষের সম্মানহানী করছে আর সুলতান মাহমুদ বিভিন্ন দপ্তরে ভেজাল সৃষ্টি করে চিঠি দিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরি করছে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও থানা পুলিশ সহ র‌্যাবের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সম্পাদন শাহআলম তালুকদার।

আরো দেখুন
Advertisment
বিজ্ঞাপন

সবচেয়ে জনপ্রিয়