শুক্রবার, জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
spot_img

অনুদানের নামে দুঃস্থ নারী থেকে ঘুষ নিলো ছাত্রলীগ নেতা

spot_img
spot_img

বিরামপুর সংবাদদাতাঃ দিনাজপুরের বিরামপুরে অসহায় এক দুঃস্থ নারীর চিকিৎসার জন্য অনুদানের টাকা পাইয়ে দিতে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে। বিষয়টি কাউকে না জানাতে হুমকিও দিয়েছেন বলে দাবি ভুক্তভোগী নারীর। তবে ঘুষের নয়, ধারের টাকা নিয়েছেন বলে দাবি করেন ছাত্রলীগ নেতা।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার নাম তানভীর রাজন সৌরভ। তিনি উপজেলার জোতবানি ইউনিয়নের কসবা সাগরপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে এবং জোতবানি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। ভুক্তভোগী নারী আঞ্জুয়ারা উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের ফুলডাঙ্গা আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দা।

আঞ্জুয়ারা বলেন, বেশ কয়েক মাস আগে তানভীর আহম্মেদ সৌরভ আশ্রয়ণ প্রকল্পে আসেন। সেখানে এক দোকানির কাছ থেকে ওই এলাকার অসুস্থ লোকের সন্ধান জানতে চান। পরে দোকানদার আমাকে পরিচয় করিয়ে দেন। আমার কিডনি ও মেরুদণ্ডের হাড়ের সমস্যা আছে। সৌরভ আমাকে এমপির কাছ থেকে অনুদানের ৫০ হাজার টাকা পাইয়ে দিতে বিভিন্ন অজুহাতে ১৪ হাজার ৬০০ টাকা আদায় করেন। দীর্ঘদিনেও অনুদানের কোনো ব্যবস্থা করতে না পারায় টাকা ফেরত চাইলে বিভিন্নভাবে হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা তানভীর রাজন সৌরভ বলেন, আসলে আমি তার কাছে ১০ হাজার টাকার মতো ধার নিয়েছিলাম। তবে মানুষজন তাকে বিভিন্নভাবে প্রভাবিত করে আমার বিরুদ্ধে অপ-প্রচার চালাচ্ছে। আমি এখন ঢাকায় আছি। এর বেশি কিছু জানি না।

বিরামপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, অসুস্থ এক নারীর কাছ থেকে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সৌরভের টাকা নেওয়ার ঘটনাটি শুনেছি। বিষয়টি তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ বিষয়ে ২ নম্বর কাটলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইউনুস আলী মন্ডল বলেন, আমার জানামতে অনুদানের টাকা পেতে কোনো ঘুষের প্রয়োজন হয় না। অসহায় ব্যক্তির টাকা নিয়ে তিনি কাজটি ভালো করেননি।

spot_img

জনপ্রিয় সংবাদ