ঢাকাসোমবার , ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলা-ধুলা
  6. গল্প কবিতা
  7. জাতীয়
  8. তথ্য প্রযুক্তি
  9. দুর্ঘটনা
  10. ধর্ম
  11. পরিবেশ
  12. ফিচার
  13. বিনোদন
  14. বিশেষ সংবাদ
  15. মতামত

মহানবী (সাঃ) স্মৃতি বিজড়িত মদিনায় সোনা ও তামার খনির সন্ধান

সংবাদ১৬.কম
সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২২ ১২:২৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ পৃথিবীর ভূগর্ভে রয়েছে আল্লাহর সৃষ্টির অপার রহস্য। কোথাও তেল, কোথাও পানি, কোথাওবা ধু ধু মরুভূমি, আবার কোথাও রয়েছে সোনার খনি। এরই মধ্যে মহানবী মোহাম্মদ (সাঃ)-র স্মৃতিবিজড়িত মদিনা এলাকায় বেশ কয়েকটি স্বর্ণ ও তামা খনির সন্ধান পেয়েছে সৌদি আরব।

আল আরাবিয়া নিউজে প্রকাশিত এক খবরে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) এসব খনির সন্ধান মেলে। সৌদি ভূতাত্ত্বিক জরিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় এক পোস্টে জানায়, মদিনা অঞ্চলের আবা আল-রাহার সীমানার মধ্যে স্বর্ণ খনির সন্ধান পাওয়া গেছে। এছাড়াও মদিনার আল-মাদিক এলাকায় চারটি স্থানে তামার খনি আবিষ্কার হয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যের তেল ও খনিজ সম্পদ সমৃদ্ধ দেশ সৌদি আরবের পবিত্র মদিনায় নতুন স্বর্ণেরখনির সন্ধান মিলেছে। স্বর্ণের পাশাপাশি এ খনি তামা সমৃদ্ধও। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সির (এসপিএ) বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মদিনা অঞ্চলে উম্ম আল-বারাক হেজাজের ঢাল আবা আল-রাহার সীমানার মধ্যে সোনার আকরিকের সন্ধান পাওয়া গেছে। ওয়াদি আল-ফারা অঞ্চলের আল-মাদিক এলাকায় চারটি স্থানে তামার আকরিকও আবিষ্কৃত হয়েছে। নতুন এ খনি ৪০ বর্গ কিলোমিটারেরও বেশি এলাকা জুড়ে রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এতে বিপুল পরিমাণে স্বর্ণ, তামা ও দস্তার মজুত রয়েছে। সেখানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা খনিজ চ্যালকোসাইট থেকে বিশেষ তামা উৎপাদনের সহায়ক। চলতি বছরেই স্বর্ণ ও তামার খনিগুলো উৎপাদনে যেতে সক্ষম।

নতুন খনি আবিষ্কারের ফলে সৌদি আরবে বিনিয়োগের গতি আরও ত্বরান্বিত হবে এবং ভিশন-২০৩০ বাস্তবায়নের পথ সহজ হবে। গত মে মাসে সৌদি আরবের শিল্প ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় খনি খাতে ৩২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা করে। এরপর জুনে সৌদি প্রিন্স গবেষণা ও উন্নয়ন খাতকে জাতীয়ভাবে অগ্রাধিকার দেন। এ তালিকায় খনি খাতের টেকসই উন্নয়নও স্থান পায়।

চলতি বছরের শুরুতে (জানুয়ারি) সৌদি ভূ-তাত্ত্বিক সমবায় সমিতি জানিয়েছিল, সৌদি আরবে পাঁচ হাজার ৩০০ টিরও বেশি খনি রয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধাতু ও অধাতু শিলা, রত্ন ও পাথর ইত্যাদি।