ঢাকারবিবার , ২০ নভেম্বর ২০২২
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলা-ধুলা
  6. গল্প কবিতা
  7. জাতীয়
  8. তথ্য প্রযুক্তি
  9. দুর্ঘটনা
  10. ধর্ম
  11. পরিবেশ
  12. ফিচার
  13. বিনোদন
  14. বিশেষ সংবাদ
  15. মতামত

বিশ্বকাপ জিতে মেসিদের দেশে ফেরার অনুরোধ ম্যারাডোনা কন্যার

সংবাদ১৬.কম
নভেম্বর ২০, ২০২২ ৯:৫৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সংবাদ ডেস্কঃ সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আজ কাতারে শুরু হচ্ছে স্বপ্নের ফুটবল বিশ্বকাপ। ডিয়েগো ম্যারাডোনার মৃত্যুর পর এটাই হতে চলেছে প্রথম বিশ্বকাপ।

দেড় বছর আগে পৃথিবীর মায়া ছেড়ে পরপারে পাড়ি জমান আর্জেন্টাইন ফুটবলের এই মহাতারকা। বেঁচে থাকলে আর্জেন্টিনাকে সমর্থন করতে হয়তো এবার কাতার বিশ্বকাপেও ম্যারাডোনাকে দেখতে পেতেন ভক্ত-অনুরাগীরা। তবে ম্যারাডোনা বেঁচে না থাকলেও উত্তরসূরিদের বিশ্বকাপ জিতে দেশে ফেরার অনুরোধ জানালেন তার কন্যা দালমা ম্যারাডোনা।

দালমার মতে, ম্যারাডোনা বেঁচে না থাকলেও মেসি-মারিয়াদের সঙ্গেই আছেন। তিনি বলেন, ‘মনে রেখো, আমার বাবা কিন্তু তোমাদের সঙ্গেই রয়েছে। ধরে নিতে পার, তিনিই এই দলের দ্বাদশ ব্যক্তি। এ বারের বিশ্বকাপে বাবার না থাকা প্রত্যেক মুহূর্তে উপলব্ধি করছি। তাই মেসির কাছে আমার একান্ত অনুরোধ, এবার বিশ্বকাপ নিয়ে দেশে ফিরতেই হবে। তা হলেই বাবা সবচেয়ে বেশি আনন্দ পাবেন। মনে রেখো, উনি কিন্তু তোমাদের দেখছেন।

বলা হয়ে থাকে বিশ্ব ফুটবল দুই ভাগে বিভক্ত। একদিকে আর্জেন্টিনা অন্যদিকে ব্রাজিল। আর আর্জেন্টাইন ফুটবলের মহানায়ক হিসেবেই বিবেচনা করা হয় ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে। যার নৈপুণ্যেই সর্বশেষ এবং দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের শিরোপায় চুমো এঁকেছিল আর্জেন্টিনা।

এরপর কেটে গেছে দীর্ঘ তিন যুগ। এই ৩৬ বছরে বারবার আক্ষেপের আগুনে পুড়েছে দেশটির ফুটবলপ্রেমীরা। ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপে তো শিরোপা জয়ের খুব কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছিল মেসি-এ্যাগুয়েরোরা। কিন্তু ফাইনালে জার্মানির কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গের বেদনা নিয়ে বাড়ি ফিরেছিল ম্যারাডোনার উত্তরসূরিরা। তাই দেশটির বর্তমান ফুটবলের জাদুকর লিওনেল মেসির কাছে এবার ভক্ত-অনুরাগীদের প্রত্যাশার মাত্রাটাও অনেক বেশি। এই বিশ্বকাপে ম্যারাডোনাকে পেছনে ফেলার সুযোগও রয়েছে মেসির সামনে।

এখন পর্যন্ত ফুটবল বিশ্বকাপে আর্জেন্টাইন হিসেবে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন ডিয়েগো। চারটি বিশ্বকাপ মিলিয়ে মোট ২১ ম্যাচ খেলেছেন তিনি। অন্যদিকে মেসি চার বিশ্বকাপে খেলেছেন ১৯ ম্যাচ। যার ফলে এই বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচে খেললেই ম্যারাডোনার নজির ভেঙে ফেলবেন এলএম টেন। শুধু তাই নয়! বিশ্বকাপে মারাডোনার গোলের সংখ্যাকেও টপকে যাওয়ার হাতছানি তার। ২১ ম্যাচ খেলে ৮টি গোল করেছেন ম্যারাডোনা।

অন্যদিকে মেসি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত করেছেন ৬ গোল। অ্যাসিস্টের দিক দিয়েও শীর্ষে ম্যারাডোনা। ৮টি অ্যাসিস্ট করেছিলেন তিনি। যেখানে মেসির অ্যাসিস্ট ৫টি।