ঢাকাসোমবার , ১৭ অক্টোবর ২০২২
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খেলা-ধুলা
  6. গল্প কবিতা
  7. জাতীয়
  8. তথ্য প্রযুক্তি
  9. দুর্ঘটনা
  10. ধর্ম
  11. পরিবেশ
  12. ফিচার
  13. বিনোদন
  14. বিশেষ সংবাদ
  15. মতামত

এমপি খোকার রাজনৈতিক কারিশমার কাছে সোনারগাঁ আওয়ামীলীগের পরাজয়

সংবাদ১৬.কম
অক্টোবর ১৭, ২০২২ ৫:০৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সংবাদ১৬.কমঃ নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে সোনারগাঁ উপজেলা ৩নং ওয়ার্ডে শান্তিপূর্ণ ভোটে জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম ইকবাল তালা প্রতীক নিয়ে ৩৪ ভোটের বিশাল ব্যবধানে বেসরকারীভাবে জয়ী হয়েছেন।

এ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মাসুমকে হাতি মার্কায় জয়ী করতে নিরলস পরিশ্রম করেছেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সামসুল ইসলাম ভূইয়া, সিনিয়র সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম, সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি আব্দুল্লাহ আল কায়সার, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও জেলা পরিষদের সদস্য-প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মাসুমের বড় ভাই মাহফুজুর রহমান কালামসহ সোনারগাঁ আওয়ামীলীগের বাঘাবাঘা নেতাকর্মীরা মাঠে কাজ করলেও জাপা এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার রাজনৈতিক কারিশমার কাছে আবারও হার মেনেছে বলে গুঞ্জন শুনা যাচ্ছে সাধারণ জনগনের মুখেমুখে।

সকাল থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত ভোট গ্রহন শেষে ১৩৩ ভোটের মধ্য একটি ভোট নষ্ট হওয়ার কারনে ১৩২ ভোটের মধ্যে জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম ইকবাল পেয়েছেন ৮৩ ভোট। তার প্রতিদ্বন্ধী সোনারগাঁ উপজেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম হাতি প্রতিকে পেয়েছেন ৪৯ ভোট। এছাড়াও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য সীমা রানী শীলা টেবিল ঘড়ি প্রতিকে পেয়েছেন ৮৩ ভোট, অ্যাডভোকেট নুরজাহান বই প্রতীকে পেয়েছেন ২৩ ভোট, শাহিদা মোশারফ দোয়াত কলম প্রতীকে পেয়েছেন ২৬ ভোট।
১৭ অক্টোবর সোমবার সকাল ৯টা থেকে ২ টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। পরে সোনারগাঁ গঙ্গাবাসি ও রামচন্দ্র ইনস্টিটিউশন মডেল স্কুল এন্ড কলেজে ভোট কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন ভোট গ্রহন শেষে বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষনা করেন।

ফলাফল ঘোষণার সাথে সাথে বিজয়ী প্রার্থীর সমর্থকরা স্লোগানে স্লোগানে সোনারগাঁ পৌর এলাকা মুখরিত করলেও আওয়ামীলীগের অনেক নেতাকর্মীদের মুখে শুনা যায় ভিন্ন সুর। তারা আক্ষেপ করে বলেন, সোনারগাঁ আওয়ামীলীগ ও নেতাকর্মীদের মাঝে কোন্দলের কারনেই আজ আমরা পরাজিত। তারা বলেন, সোনারগাঁ আওয়ামীলীগের নেতারা এক টেবিলে বসে থাকলেও তাদের ব্যক্তিগত স্বার্থ উদ্ধারের স্বার্থে দলের সাথেই বেঈমানী করে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আওয়ামীলীগের অনেক নেতাই বলেন, মনের দিক থেকে যদি সোনারগাঁ আওয়ামীলীগের নেতারা ঐক্যবদ্ধ না হতে পারেন আগামী সংসদ নির্বাচনে গত ৩ সেপ্টেম্বর শেখ রাসেল স্টেডিয়ামে সম্মেলনে বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজমের দেয়া বক্তব্য আবারও বাস্তবে রূপ নেবে। যদি এমন কোন্দল থাকে আগামী সংসদ নির্বাচনে সোনারগাঁ থেকে জাপা এমপি লিয়াকত হোসেন খোকাই পূনরায় মনোনয়ন পাবে।

জেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে একাধিক ইউপি সদস্যের সাথে কথা বললে তারা জানান, এই নির্বাচনে আবু নাঈম ইকবাল তার নিজস্ব অবদানে বিজয়ী হওয়া কোন ক্রমেই সম্ভব ছিলোনা। একমাত্র এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার রাজনৈতিক কারিশমা ও তার মেধার কাছে দলীয় কোন্দলের কারনে হার মেনেছে সোনারগাঁ আওয়ামীলীগ।